Home /News /kolkata /
রেড রোড কাণ্ডে অভিযুক্ত সাম্বিয়ার ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজত

রেড রোড কাণ্ডে অভিযুক্ত সাম্বিয়ার ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজত

রেড রোড কাণ্ডে অভিযুক্ত সাম্বিয়া সোহরাবের ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত ৷ অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবীর জামিনের আর্জি খারিজ করে ৩০ জানুয়ারি অবধি পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিল নগর দায়রা আদালত ৷

  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: রেড রোড কাণ্ডে অভিযুক্ত সাম্বিয়া সোহরাবের ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত ৷ অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবীর জামিনের আর্জি খারিজ করে ৩০ জানুয়ারি অবধি পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিল নগর দায়রা আদালত ৷ সাম্বিয়ার বিরুদ্ধে খুন, খুনের চেষ্টা, তথ্যপ্রমাণ লোপাট ও ষড়যন্ত্রেরও অভিযোগ এনেছে পুলিশ ৷

    গত বুধবার রেড রোডে সেনার কুচকাওয়াজ চলাকালীন বায়ু সেনার এক কর্মীকে একটি সাদা অডি গাড়ি পিষে দিয়ে চলে যায় ৷ অভিযোগ, ওই গাড়িটি চালাচ্ছিলেন সাম্বিয়া ৷ ঘটনার পরই গা ঢাকা দেন সাম্বিয়া ৷ শনিবার রাতে সাম্বিয়াকে বেকবাগান এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ ৷ রবিবার সকালে ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা হয় রেড রোড কাণ্ডে মূল অভিযুক্তকে ৷ রেড রোডের ঘটনায় খুনের উদ্দেশ্যে বাধা টপকে মহড়ায় ঢুকে পড়ে অডি। আজ আদালতে এটাই প্রমাণের তাগিদ ছিল পুলিশের। সাম্বিয়াই গাড়ি চালাচ্ছিল, এমন প্রমাণ এখনও না থাকায় পুলিশের রিপোর্টে তা উল্লেখ করা হয়নি। বরং অভিযুক্তের জবানবন্দিকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আদালতও পুলিশের বক্তব্যে সহমত পোষণ করেছে। সাম্বিয়ার বিরুদ্ধে ৩০২,১২০ (বি), ৩০৭, ২১২, ৪২৭, ২০১ ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ ৷ নিছকই ভুল করে নয়। নেশাগ্রস্ত অবস্থায় থাকার জন্যও নয়। খুনের উদ্দেশ্যেই ছিল রেড রোডের অডি গাড়ির চালকের। নগর দায়রা আদালতে পেশ করা রিপোর্টে এ কথাই বলল পুলিশ।

    এদিনের শুনানিতে অভিযুক্তের আইনজীবী অনিচ্ছাকৃত ঘটনার তত্ত্ব তুলে ধরে জামিন চান ৷ বিপক্ষে সরকার পক্ষের আইনজীবী নিজের দলিলে বলেন, পুলিশ বাধা সত্ত্বেও কুচকাওয়াজের জন্য বন্ধ রাস্তা দিয়ে ঢুকে পড়ে সাম্বিয়া ৷ একের পর এক গার্ডরেলে ধাক্কা মারতে মারতে সেদিন এগোয় গাড়িটি ৷ বায়ুসেনা অফিসার অভিমন্যু গৌড়কে পিষে দেয় অডি গাড়িটি ৷ সঙ্গে আর্মির অন্য একজনকেও ধাক্কা দেয় ৷ সরকারি আইনজীবী অভিযোগ করেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই ওই ঘটনা ঘটানো হয়েছিল ৷ এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত হয়ে আদালত অভিযুক্তের জামিনের আর্জি খারিজ করে দেয় ৷

    অন্যদিকে, বায়ুসেনার মুখপাত্র উইং কমান্ডার এস এস বিরদি জানিয়েছেন, ‘সাম্বিয়ার গ্রেফতারি ইতিবাচক ৷ তবে বিচার পেতে দেরি না হয় ৷ অভিমন্যুর পরিবার যেন সময়মতো বিচার পায় ৷’ গাড়িতে একাধিক ব্যক্তি থাকার দাবিকে নস্যাৎ করে তিনি বলেন, ‘গাড়িতে একজনই ছিল ৷ প্রত্যক্ষদর্শী ও তথ্যপ্রমাণও তাই বলছে ৷’

    First published:

    Tags: Death of air force officer, Kolkata Police, Police Custody, Red road Accident, Sambia Soharab