Home /News /kolkata /
সোশ্যাল মিডিয়ায় মা-মাটি-মানুষকেই জয়ের কৃতিত্ব দিলেন মমতা

সোশ্যাল মিডিয়ায় মা-মাটি-মানুষকেই জয়ের কৃতিত্ব দিলেন মমতা

সিঙ্গুর রায়ে উচ্ছ্বসিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিক্রিয়া জানালেন সোস্যাল মিডিয়ায় ৷ সিঙ্গুরের জমি আন্দোলনকে কেন্দ্র করেই রাজ্যে রাজনৈতিক পরিবর্তনের সূত্রপাত।

  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: সিঙ্গুর রায়ে উচ্ছ্বসিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিক্রিয়া জানালেন সোস্যাল মিডিয়ায় ৷ সিঙ্গুরের জমি আন্দোলনকে কেন্দ্র করেই রাজ্যে রাজনৈতিক পরিবর্তনের সূত্রপাত। বামদুর্গ গুড়িয়ে মা-মাটি-মানুষের ডাকে পরিবর্তনের যাত্রার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন হয়েছিল এই সিঙ্গুরের জমি অধিগ্রহণের বিরোধিতায়। দশ বছরের অপেক্ষা শেষে আজ তাই স্বস্তিতে মুখ্যমন্ত্রী। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে আজ পূর্ণ হয়েছে সেই আন্দোলনের বৃত্ত। এই রায় তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল সরকারের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন।

    সোশ্যাল মিডিয়ায় সিঙ্গুর মামলায় রায়কে মা-মাটি-মানুষের সরকারের জয় বলে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ তিনি বলেন, ‘এটা হল ল্যান্ডমার্ক ভিকট্রি ৷ এই জয় ঐতিহাসিক জয় ৷ ধারাবাহিক আন্দোলনের জয় ৷ সিঙ্গুরের কৃষকদের জয় ৷ এই জয় গণদেবতার জয়। সর্বোচ্চ আদালতের এই রায়কে আমি শ্রদ্ধার সঙ্গে গ্রহণ করব ৷ আমি খুবই খুশি হয়েছি ৷’ একইসঙ্গে নিজের প্রতিক্রিয়ায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এই জয় আমার চোখে জল এনে দিয়েছে ৷ এই আন্দোলনে যারা পাশে ছিলেন তাদের সবাইকে আমার ধন্যবাদ ৷ ’

    একইসঙ্গে বিরোধীদের কটাক্ষ করে নেত্রী ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমার ২৬ দিনের অনশন এবং কৃষকদের জমি রক্ষার্থে সিঙ্গুরে ১৪ দিনের ধর্ণার সময় যারা বিরোধিতা করেছিলেন, তাদেরকে আমি বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাতে চাই ৷’

    সিঙ্গুর আন্দোলনের স্মৃতিরোমন্থন করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর মুখে উঠে আসে মহাশ্বেতা দেবী থেকে মেধা পাটকরের কথা ৷ ‘আজ আমার মহাশ্বেতাদির কথা খুব মনে পড়ছে ৷ আজ মহাশ্বেতাদি বেঁচে থাকলে খুব খুশি হতেন ৷ আমি নিজে সিঙ্গুর নিয়ে অনশন করেছি ৷ তৎকালীন রাজ্যপাল গোপালকৃষ্ণ গান্ধি আমার অনশন মঞ্চে গিয়েছিলেন ৷ ভিপি সিং, রাজনাথ সিং, মেধা পাটেকরও এসেছিলেন ৷ আজ সবার কথাই মনে পড়ছে ৷’

    সিঙ্গুর জমি আন্দোলনের শহীদ তাপসী মালিক সহ ১৪ জন কৃষকের কথাও উঠে এসেছে মুখ্যমন্ত্রীর পোস্টে ৷ ‘সিঙ্গুর, নন্দীগ্রাম, নেতাইদের শহিদ মানুষদের স্মরণ করছি ৷ যে কৃষকরা অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেননি ৷ তাদের আমি স্যালুট জানাচ্ছি ৷’

    একইসঙ্গে সিঙ্গুর আন্দোলনের তাৎপর্য নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জমির অধিকারে নতুন দিগন্ত এনে দিল ৷ জমি যার, জমিতে তারই অধিকার ৷ আজ আদালত তাতেই সিলমোহর দিল ৷ ১৮৯৪-এর জমি অধিগ্রহণ আইনে পরিবর্তন কতটা জরুরি তাও প্রমাণ করল এই রায় ৷’

    শেষে সমস্ত মা-মাটি-মানুষকে এই জয় উৎসর্গ করেন নেত্রী ৷ ‘জয় হে, জয় হে, জয় হে।বাংলার জয়, মানুষের জয়, সত্যের জয়।সিঙ্গুরের জয়।জয়ো বাংলা, জয়ো বাংলা, জয়ো বাংলা।’

    First published:

    Tags: CM Mamata Banerjee, Singur Andolon, Singur Farmers, Singur Land Case Verdict, Singur TATA Nano Factory