আন্তর্জাতিক মঞ্চে টাটা গোষ্ঠীকে শিল্পস্থাপনের আহ্বান জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

সিঙ্গুর নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বিদেশের মাটিতে রাজ্যের হয়ে সওয়াল টাটা গোষ্ঠীর।

সিঙ্গুর নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বিদেশের মাটিতে রাজ্যের হয়ে সওয়াল টাটা গোষ্ঠীর।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #মিউনিখ: সিঙ্গুর নিয়ে বিতর্কের মাঝেই বিদেশের মাটিতে রাজ্যের হয়ে সওয়াল টাটা গোষ্ঠীর। মিউনিখ শিল্প সম্মেলনে বাংলার সম্ভাবনার কথা তুলে ধরলেন টাটা স্টিলের এমডি টিভি নরেন্দ্র। পালটা অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে টাটা গোষ্ঠীকেও শিল্পস্থাপনের আহ্বান জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। আন্তর্জাতিক মঞ্চেও সিঙ্গুর ইস্যুর এক অসাধারণ সমাপতন হল। বিরোধী নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লাগাতার আন্দোলনেই সিঙ্গুর থেকে পাততাড়ি গুটিয়ে সানন্দে যেতে হয়েছে। সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে হাতছাড়া হয়েছে সিঙ্গুরের সেই জমিও। সিঙ্গুরকে কেন্দ্র করে মমতা-টাটা বিতর্কের এক অসাধারণ সমাপতন হল এরাজ্য থেকে কয়েক হাজার কিলোমিটার দূর এক আন্তর্জাতিক মঞ্চে। যেখানে ব্র্যান্ড বাংলার প্রচারের পাশাপাশি এরাজ্যে বিনিয়োগের আহ্বানও জানালেন খোদ টাটা স্টিলের এমডি। এখনও রাজ্যের নীতি, জোর করে জমি অধিগ্রহণ নয়। কিন্তু শিল্পের জন্য বিনিয়োগে রাজ্য জমি এবং পরিকাঠামো নিয়ে প্রস্তুত। তাই আন্তর্জাতিক মঞ্চ পেয়ে টাটাকেও লগ্নির আহ্বান মুখ্যমন্ত্রীর। ‘রাজ্যে বিনিয়োগের জন্য স্বাগত টাটা ৷  আমাদের ল্যান্ড ব্যাঙ্ক তৈরি ৷  ল্যান্ড পলিসি, ল্যান্ড ম্যাপও তৈরি ৷  তাই জমি কোনও সমস্যা নয়’, টাটাকে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়ে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যা লগ্নি টানতে মিউনিখে মুখ্যমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছেন দেশের বেশ কয়েকজন প্রথমসারির শিল্পপতি এবং শিল্প সংস্থার প্রতিনিধি। তালিকায় রয়েছে সঞ্জীব গোয়েঙ্কা, হর্ষ নেওটিয়া, রিলায়েন্সের তরুণ ঝুনঝুনওয়ালার মতো নাম। তাই লগ্নিকারীদের মুখ দিয়েই বিদেশে ব্র্যান্ড বেঙ্গলের বিজ্ঞাপন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন জার্মান বহুজাতিক সিমেন্সের প্রতিনিধিদের সঙ্গেও রাজ্যের বিনিয়োগের সম্ভাবনা নিয়ে বৈঠক করেন টিম মমতার সদস্যরা।

    First published: