গ্রেফতার অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সি এস কারনান

গ্রেফতার অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সি এস কারনান

গ্রেফতার অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সি এস কারনান

গ্রেফতার অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সি এস কারনান

  • Share this:

    #কলকাতা: অবশেষে গ্রেফতার সিএস কারনান ৷ দক্ষিণ ভারতের কোয়েম্বাটুর থেকে কলকাতা হাইকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত এই বিচারপতিকে গ্রেফতার করল সিআইডি ৷ আদালত অবমাননায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন কারনান ৷ আদালত অবমাননা করার অপরাধে কারনানকে ৬ মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট ৷ তারপর থেকেই অজ্ঞাতবাসে ছিলেন সিএস কারনান ৷

    বিচারপতির বেনজির সাজা! স্বাধীন ভারতে এই প্রথম কোনও বিচারপতিকে কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। মাদ্রাজ হাইকোর্ট থেকে কলকাতা বদলি নিয়ে প্রথম গন্ডগোল শুরু। তারপর কোনপথে এই রায় শীর্ষ আদালতের? কীভাবেই বা বিতর্কের সূত্রপাত?

    কখনও নিজের বদলির নির্দেশে স্থগিতাদেশ। কখনও বা বিচারবিভাগে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে খোদ প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি। বারবার বিতর্কে জড়িয়েছেন বিচারপতি চিন্নাস্বামী স্বামীনাথন কারনান। আদালত অবমাননার দায়ে এবার তাঁরই সাজা ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট।

    ২৭ জানুয়ারি, ২০১৭ ২০ বিচারপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেন বিচারপতি কারনান ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ কারনানকে শোকজ করে সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ বেঞ্চ ১৩ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টে হাজিরার নির্দেশও দেওয়া হয় সেই নির্দেশ মানেননি সি এস কারনান ১০ মার্চ, ২০১৭ কারনানের বিরুদ্ধে জামিনযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে সুপ্রিম কোর্ট ১৭ মার্চ, ২০১৭ নিউটাউনে নিজের বাড়িতে আদালত বসিয়ে সেই গ্রেফতারি পরোয়ানা খারিজ করেন কারনান ৪ মে, ২০১৭ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে কারনানের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাঁর বাড়িতে পাভলভের চিকিৎসকদের নিয়ে যায় পুলিশ সুস্থ আছেন বলে সেই চিকিৎসক ও পুলিশকে ফিরিয়ে দেন তিনি কিন্তু, সেই চিকিৎসকদের ফিরিয়ে দেন কারনান ৮ মে, ২০১৭ বেনজির ভাবে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি-সহ মোট ৮ বিচারপতিকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন কারনান তফসিলি জাতি ও উপজাতিদের উপর অত্যাচার রুখতে যে আইন তার বলেই এই নির্দেশ জারি করেন তিনি ৯ মে, ২০১৭ আদালত অবমাননার দায়ে বিচারপতি কারনানকে ৬ মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয়

    কারনানের একাধিক বিতর্কিত পদক্ষেপে তৈরি হচ্ছিল একের পর এক নজির। এবার, তাঁর কারাদণ্ডের ঘোষণা করে নতুন নজির তৈরি করল দেশের শীর্ষ আদালতও।

    এখানেই বিতর্কের শেষ নয় ৷ আদালতের গ্রেফতারির নির্দেশের পর থেকেই খোঁজ মিলছিল না তাঁর ৷ জল্পনা ছিল দেশ ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছেন তিনি ৷ অবশেষে দক্ষিণ ভারত থেকে এদিন গ্রেফতার করা হয় তাঁকে ৷ অজ্ঞাতবাসে থাকার সময়ই ১২ জুন বিচারপতির হিসেবে মেয়াদ শেষ হয়ে যায় সি এস কারনানের ৷

    First published: