Home /News /kolkata /
খানাখন্দে ভর্তি হাওড়া ব্রিজ কিন্তু ব্রিজ মেরামতির দায়িত্ব কার ?

খানাখন্দে ভর্তি হাওড়া ব্রিজ কিন্তু ব্রিজ মেরামতির দায়িত্ব কার ?

প্যাচওয়ার্ক করতে টেন্ডার পাস করেছে KMDA। যদিও কবে কাজ শুরু হবে জানা নেই। হেলদোল নেই পোর্ট ট্রাস্টের। মুখে কুলুপ PWD-রও।

  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: প্যাচওয়ার্ক করতে টেন্ডার পাস করেছে KMDA। যদিও কবে কাজ শুরু হবে জানা নেই। হেলদোল নেই পোর্ট ট্রাস্টের। মুখে কুলুপ PWD-রও। পুরমন্ত্রীর দাবি, ব্রিজ সারাতে হবে পোর্ট ট্রাস্টকেই। এই দড়ি টানাটানিতে খানাখন্দে ভরা পাথরের টুকরো, লোহার পাত বেরনো কঙ্কালসার চেহারার হাওড়া ব্রিজের বিপদ ক্রমেই বাড়ছে। যে কোনওদিন কলকাতার গর্বে ঘটে যেতে পারে বড়সড় কোনও দুর্ঘটনা।তখন কী হুঁশ ফিরবে প্রশাসনের? উঠছে প্রশ্ন।

    এই ক্ষত সারানোর দায় কার? এই প্রশ্নেই এখন দড়ি টানাটানি। ১৯৪৩-য়ে তৈরি হওয়া কলকাতা ও হাওড়ার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সংযোগকারী হাওড়া ব্রিজ বা রবীন্দ্র সেতুর হাল আজ বেহাল। কলকাতার গর্বের গায়ে আজ অজস্র ক্ষত।

    চারদিকে খানাখন্দ। পিচ সরে লোহার পাত বেরিয়ে পড়েছে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে বড় বড় পাথর। বর্ষায় অবস্থা আরও সঙ্গীন। নিত্যদিন কোনও না কোনও দুর্ঘটনার সাক্ষী হাওড়া ব্রিজ। কিন্তু সংস্কার নেই। পোর্ট ট্রাস্ট, পিডবলুডি, কেএমডিএ-র টানাপোড়েনে ব্রিজ মেরামতির কাজ শিকেয়।

    ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের। কলকাতা থেকে ব্রিজে ওঠার ব্রিজের অংশের দায়িত্বে KMDA। ব্রিজ থেকে হাওড়ায় নামার অংশের দায়িত্বে PWD। কিন্তু, সেতু মেরামতি বা প্যাচওয়ার্কের কাজ কে করবে তাই নিয়েই দীর্ঘ তিন মাস ধরে চলছে দড়ি টানাটানি।

    কেএমডিএ সূত্রে খবর,----ব্রিজে প্যাচওয়ার্ক করতে অনুরোধ করে হাওড়া সিটি পুলিশের ট্রাফিক ডিপার্টমেন্ট ----সেইমত টেন্ডার পাস করে কেএমডিএ -----কিন্তু কাজ কবে শুরু হবে জানা নেই ----শুধু প্যাচ ওয়ার্ক করে সমস্যার সমাধান হবে না -----ঢালাই ভেঙে নতুন করে তৈরি করতে হবে -----তার জন্য দেড় থেকে দু কোটি টাকা খরচ হবে -----সংশ্লিষ্ট দফতরে আরজি জানালেও এখনও অনুমোদন মেলেনিকেএমডিএ সূত্র যাই বলুক, ব্রিজ সারানোর দায় পোর্ট ট্রাস্টেরই। পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলছেন,  ‘হাওড়া ব্রিজ ও অ্যাপ্রোচ রাস্তার দায়িত্বে বন্দর কর্তৃপক্ষ ৷ ওই রাস্তাগুলির দায়িত্ব KMDA-এর নয় ৷ বন্দর কর্তৃপক্ষকেই দেখভাল করতে হবে ৷ নাচতে না জানলে উঠোন ব্যাঁকাই হয় ৷ পার্কিং সমস্যা নিয়ে অসুবিধা করছে বন্দর কর্তৃপক্ষ ৷ রাস্তা নিয়েও ওরা সমস্যা করছে ৷ নীতিন গডকড়িকে জানাব ৷ ডিসি পোর্টের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে ৷ বন্দর কর্তৃপক্ষ রাস্তা ঠিক না করলে আন্দোলন হবে ৷’পুরো বিষয়ে পোর্ট ট্রাস্ট ও PWD-র মুখে কুলুপ। আর এই টানাপোড়েনে বিপদ বাড়ছে হাওড়া ব্রিজে।

    First published:

    Tags: Destruction Of Howrah Bridge, KMDA, Kolkata Port Trust, Potholes, PWD, Renovation