?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

কর্মরত শিক্ষকদের জন্য সুখবর, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে সংশোধনী আনছে কমিশন

কর্মরত শিক্ষকদের জন্য সুখবর, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে সংশোধনী আনছে কমিশন
Representative Image

চাকরিপ্রার্থীদের জন্য স্বস্তি ৷ শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি চ্যালেঞ্জ মামলায় শিক্ষক নিয়োগে কোনও স্থগিতাদেশ দিল না হাইকোর্ট ৷ তবে কর্মরত শিক্ষকদের আর্জি মেনে বিজ্ঞপ্তির সংশোধনী প্রকাশের জন্য অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট ৷

  • Share this:

#কলকাতা: চাকরিপ্রার্থীদের জন্য স্বস্তি ৷ শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি চ্যালেঞ্জ মামলায় শিক্ষক নিয়োগে কোনও স্থগিতাদেশ দিল না হাইকোর্ট ৷ তবে কর্মরত শিক্ষকদের আর্জি মেনে বিজ্ঞপ্তির সংশোধনী প্রকাশের জন্য অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট ৷ কর্মরত শিক্ষকরা নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারবেন ৷ আদালতের রায়ের পর উচ্চ প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক তিন পর্যায়ের নিয়োগে কর্মরত শিক্ষকদের অংশ নিতে আর কোনও বাধা রইল না ৷ হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে দ্রুত তাড়াতাড়ি সংশোধনী বিজ্ঞপ্তি জারি করবে স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷

গত ২৩ সেপ্টেম্বর রাজ্যে উচ্চ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি স্কুল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইট অর্থাৎ http://www.westbengalssc.com -এ সাইটে প্রকাশিত হয় ৷ বিজ্ঞপ্তি অনুসারে গত ২৪ তারিখ থেকে অনলাইনে উচ্চ প্রাথমিক টেট উত্তীর্ণদের আবেদনপত্র গ্রহণ শুরু হয়ে গিয়েছে, চলবে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত ৷

মঙ্গলবার শিক্ষক নিয়োগের সরকারি বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করলেন কর্মরত শিক্ষকরা ৷ তাদের দাবি, আপার প্রাইমারি ও মাধ্যমিকে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগের যোগ্যতা মান নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে ৷ সেই নিয়ে কোর্টের হস্তক্ষেপ চেয়ে মামলা করলেন কর্মরত দুই শিক্ষক, প্রশান্ত মিস্ত্রি ও সৌরভ সাহা ৷ নিয়োগে অংশ নেওয়ার আবেদন জানায় কর্মরতরা ৷

আরও পড়ুন

অপ্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীদেরও ন্যায্য সুযোগ দেবে SSC-এর নয়া বিধি

তাতেই নতুন করে তৈরি নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল ৷ কিন্তু এদিন আদালতের রায়ে স্বস্তির নিশ্বাস ফেললেন রাজ্যের শিক্ষক পদের সমস্ত চাকরিপ্রার্থীরা ৷

আরও পড়ুন

প্রকাশিত হল উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি, দেখে নিন পরীক্ষার খুঁটিনাটি

এই মুহূর্তে সরকারি হিসেব অনুযায়ী আপার প্রাইমারিতে ১৪,০৮৮ জন শিক্ষকের পদ শূন্য এবং মাধ্যমিক স্তরে ১০,২৩৩ জন শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে ৷ ফলে উচ্চ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক মিলিয়ে ২৪,৩২১ জন শিক্ষক নিয়োগ করা হবে ৷

আরও পড়ুন

বছর শেষের আগে ৭২ হাজার শিক্ষক নিয়োগের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর

পূর্বের বিজ্ঞপ্তি অনুসারে বিজ্ঞপ্তি কর্মরত শিক্ষকদের যে যোগ্যতামান বর্ণিত হয়েছে তাতে আপত্তি জানান দুই কর্মরত শিক্ষক ৷ বিজ্ঞপ্তিতে বলা ছিল লোয়ার ক্যাটাগরিতে কর্মরত শিক্ষকরাই এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারবেন ৷ এই শর্তে আপত্তি জানানো হয় ৷

ট্রান্সফার সংক্রান্ত সমস্যার কারণে অনেক কর্মরত শিক্ষকই নতুন করে নিজের বাসস্থানের কাছাকাছি আবেদন করতে চান ৷ কিন্তু কমিশনের প্রকাশিত এই বিজ্ঞপ্তিতে সেই সুযোগ নেই ৷ সেই কারণেই আদালতের দ্বারস্থ হন প্রশান্ত মিস্ত্রি ও সৌরভ সাহা ৷ এই দিন কর্মরত শিক্ষকদের আর্জি শুনে তাদের দাবী মেনে নিয়ে হাইকোর্ট স্কুল সার্ভিস কমিশনকে কর্মরত শিক্ষকদের জন্য সংশোধনী বিজ্ঞপ্তি জারি করার নির্দেশ দেয় ৷ হাইকোর্টের এই রায়ে খুশি কর্মরত শিক্ষকরা ৷

মঙ্গলবারই প্রায় ৭২ হাজার শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের কথা ঘোষণা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ৷ এর ফলে চাকরিপ্রার্থীদের আশা আরও খানিকটা উজ্জ্বল হল ৷ এর আগে কমিশন ও পর্ষদের দেওয়া হিসেব অনুযায়ী রাজ্যে শিক্ষকদের জন্য মোট ৫৯,৪৬৮ শূন্যপদ রয়েছে ৷ তবে শিক্ষামন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী দু’জনেই আগে শূন্যপদ আরও বাড়ার ইঙ্গিত করেছিলেন ৷ পর্ষদ প্রাথমিকের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ দেওয়ার সময়ও প্রাথমিকে শূন্যপদ বেড়ে ৪১ হাজার ৫৫৯ থেকে বেড়ে হয় ৪২,৯৪৯টি ৷

রাজ্যে বহুদিন ধরে বাধাপ্রাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ ৷ বিতর্ক ও আইনি ফাঁস পেরিয়ে সদ্য শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করেছে রাজ্য সরকার ৷ শিক্ষা দফতরের লক্ষ্য, বছর শেষ হওয়ার আগে সমস্ত শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ সম্পূর্ণ করবে রাজ্য ৷

First published: September 28, 2016, 7:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर