Home /News /kolkata /
নিজেদের মধ্যে লড়াই রুখতে আসরে সোমেন-সূর্যরা

নিজেদের মধ্যে লড়াই রুখতে আসরে সোমেন-সূর্যরা

বিধানসভা ভোটের প্রথম পর্বের জন্য মনোনয়ন জমা দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে শুক্রবারই ৷ অথচ বাম-কংগ্রেস ‘বোঝাপড়া’-রা কাজ এখনও অব্যাহত ৷ সেই কাজে প্রধান কাঁটা এখন বেশ ক’টি আসন ৷ তার মধ্যে ১৫টি আসন দু’তরফেরই তালিকায় ঘোষিত ৷ তবে যেগুলি ঘোষিত নয় সেগুলো নিয়ে টানাপোড়েন এখনও চলছে ৷ এমন অবস্থায় দু’দলের মুখোমুখি বৈঠকে বসাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল ৷ শুক্রবার রাতে সূর্যকান্ত মিশ্র এবং সোমেন মিত্ররা যে আলোচনায় বসেছিলেন, তাতে দু’পক্ষেরই দাবি দু’দলের মিলিত লড়াই নিয়ে জট অনেকটাই কাটানো সম্ভব হয়েছে ৷

আরও পড়ুন...
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা :  বিধানসভা ভোটের প্রথম পর্বের জন্য মনোনয়ন জমা দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে শুক্রবারই ৷ অথচ বাম-কংগ্রেস ‘বোঝাপড়া’-রা কাজ এখনও অব্যাহত ৷ সেই কাজে প্রধান কাঁটা এখন বেশ ক’টি আসন ৷ তার মধ্যে ১৫টি আসন দু’তরফেরই তালিকায় ঘোষিত ৷ তবে যেগুলি ঘোষিত নয় সেগুলো নিয়ে টানাপোড়েন এখনও চলছে ৷ এমন অবস্থায় দু’দলের মুখোমুখি বৈঠকে বসাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল ৷ শুক্রবার রাতে সূর্যকান্ত মিশ্র এবং সোমেন মিত্ররা যে আলোচনায় বসেছিলেন, তাতে দু’পক্ষেরই দাবি দু’দলের মিলিত লড়াই নিয়ে জট অনেকটাই কাটানো সম্ভব হয়েছে ৷ আপাতত বামেরা ২০০ এবং কংগ্রেস ৭৫টি আসনের প্রার্থী তালিকা তরি করেছে ৷ মুর্শিদাবাদ জেলার ৬টি, বীরভূমের ৪টি, পুরুলিয়া ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলার একটি করে আসন নিয়ে টানাটানি চলছে। এই যুদ্ধের অবসান ঘটাতে বিকেলে বিধান ভবনে প্রদেশ কংগ্রেস নির্বাচন কমিটির বৈঠকে বসেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। তাই আর দেরি না করে সন্ধেবেলাতেই সিপিএম-এর দৈনিক মুখপত্রের দফতরে আলোচনায় বসেন সূর্যকান্ত মিশ্র-সোমেন মিত্ররা ৷

    কংগ্রেস সূত্রের খবর, আসন ভাগাভাগির নির্দিষ্ট একটি সূত্র বার করে আলোচনা শুরু হয়েছে। রফা-সূত্রের তিনটি পর্ব। ১. গত বার বামফ্রন্টের জেতা ৬২ ও কংগ্রেসের জেতা ৪২—  দু’পক্ষের কেউই এই ১০৪টি আসনে কেউ হাত দেবে না। ২. অন্তত ১০টি আসন থাকবে জেডিইউ, আরজেডি, এনসিপি, পিডিএস বা ঝাড়খণ্ড পার্টির মতো দু’দলের মিত্র দলগুলির জন্য। ৩. বাকি ১৮০টি আসনের দুই-তৃতীয়াংশে বামেরা ও এক-তৃতীয়াংশে লড়বে কংগ্রেস।

    বৈঠকের পরে সূর্যবাবু বলেন, ‘‘তৃণমূল, বিজেপিকে আটকানোর জন্য যা করতে হয়, বাংলা সেই দিকেই এগোচ্ছে। একের বিরুদ্ধে এক লড়াই হচ্ছে, হবে। ভাল আলোচনা হয়েছে।’’ অন্য দিকে সোমেনবাবুর বক্তব্য, ‘‘দু’পক্ষই সহানুভূতির সঙ্গে আলোচনা করছে। দু’পক্ষই বুঝতে পেরেছি, মানুষের স্বার্থে আমাদের একটা ঐকমত্যে পৌঁছতে হবে। বন্ধুত্বপূর্ণ লড়াই নিয়ে জট অনেকটাই কেটেছে।’’

    First published:

    Tags: Congress, Cpim, Somen Mitra, Suryakanta Misra