Home /News /kolkata /
পার্কে অন্তরঙ্গ প্রেমিক দল, সল্টলেকে সালিশি সভা

পার্কে অন্তরঙ্গ প্রেমিক দল, সল্টলেকে সালিশি সভা

সল্টলেকে নীতি পুলিশের ভূমিকায় এবার তৃণমূল ৷ সোমবার রাতে সল্টলেকের একটি পার্কে অন্তরঙ্গ অবস্থায় বসে ছিল ৬ প্রেমিক যুগল ৷ এলাকার পরিবেশ নষ্টের অভিযোগে ওয়ার্ড অফিসে তুলে আনা হয় প্রেমিক-প্রেমিকাদের৷ বসানো হয় সালিশি সভা ৷ তৃণমূল কাউন্সিলর অনিতা মণ্ডলের তত্ত্বাবধানে সালিশি সভা উপস্থিত ছিলেন বিধাননগর পূর্ব থানার পুলিশকর্মীরাও ৷

আরও পড়ুন...
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: ১২ জন স্কুলপড়ুয়া ছেলেমেয়ে। কেউ এসেছে টিউসানের বাহানায়। কেউ হোমের পাঁচিল টপকে। সকলেরই গন্তব্য সল্টলেকের বিএইচ ব্লকের পার্ক। সেখানেই অন্তরঙ্গ মূহূর্তে ধরা পড়ে ৬ প্রেমিক যুগল। পুলিশের উপস্থিতিতে পুরনিগমের ওয়ার্ড অফিসে বসে সালিশি সভা। পরে অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়া হয় নাবালক ছেলেমেয়েদের।

    সল্টলেকের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত বিএইচ ব্লকের পার্কের কার্যকলাপ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের বহুদিনের অভিযোগ। প্রতি সন্ধ্যেয় এখানে ভিড় করে কমবয়সী ছেলেমেয়েরা। প্রকাশ্যে তাদের অন্তরঙ্গ মূহূর্ত অস্বস্তি বাড়ায় আশপাশের বাসিন্দাদের। বহুবার প্রতিবাদ করেও ফল হয়নি। শেষে কাউন্সিলর অনিতা মণ্ডলকের কাছে অভিযোগ করেন তাঁরা। সোমবার সন্ধে পার্কে একই রকম অন্তরঙ্গ মূহূর্তে বসে কয়েক জোড়া ছেলেমেয়ে। সেখানে পৌঁছে যান স্থানীয় কিছু যুবক। ছেলেমেয়েদের ধরে নিয়ে আসা হয় পুরনিগমের ওয়ার্ড অফিসে। ডাকা হয় বিধাননগর পূর্ব খানার পুলিশকে। ছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলরও। সেখানেই একরকম সালিশি সভা বসে। জানা যায় টিউসানের নাম করে অভিভাবকদের চোখে ধুলো দিয়ে পার্কে আসে তারা। বিষয়টি অবশ্য থানা পর্যন্ত গড়ায়নি। ছেলেমেয়েদের তুলে দেওয়া হয় অভিভাবকদের হাতে। এদের মধ্যে চারজন মেয়ে স্থানীয় হোমের বাসিন্দা। হোমের পাঁচিল টপকে পালিয়ে এসেছে বলে অভিযোগ। হোম কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাদেরও। কাউন্সিলর অনিতা মণ্ডল জানান, ‘এলাকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছিল ৷ প্রেমিক-প্রেমিকাদের কিছু বললেই ওরা গালাগালি দিত ৷ স্থানীয়রা বহুদিন ধরেই অভিযোগ করছিলেন ৷ তাই প্রেমিক-প্রেমিকাদের তুলে আনা হয় ৷’ এই ধরণের ঘটনায় মেয়েদের নিরাপত্তার বিষয়টি জড়িত। ভবিষ্যতে এই ধরণের ঘটনা ঘটলে একই পদক্ষেপ নেবেন বলে জানিয়েছেন পুরপ্রতিনিধি।

    First published:

    Tags: Moral Policing, Saltlake, TMC, TMC Councillor, Ward Office