Home /News /kolkata /
শর্ত সাপেক্ষে সাংসদ মেলার অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট

শর্ত সাপেক্ষে সাংসদ মেলার অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট

অবশেষে আসানসোলে সাংসদ মেলা করার অনুমতি পেলেন কেন্দ্রীয় ভারীশিল্প প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ও বিজেপি সাংসদররা ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: অবশেষে আসানসোলে সাংসদ মেলা করার অনুমতি পেলেন কেন্দ্রীয় ভারীশিল্প প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ও বিজেপি সাংসদররা ৷ গত দু’দিন ধরে টানাপোড়েনের পর অবশেষে আসানসোলে সাংসদ সভা করার শর্তাধীন অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট ৷ অর্থাৎ কোনওরকম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াই সাংসদ মেলা করার অনুমতি দিলেন বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দারের ডিভিশন বে‍ঞ্চ ৷ একইসঙ্গে পর্যাপ্ত পুলিশি পাহারা মোতায়েন করার নির্দেশ দেয় আদালত ৷

    সাংসদ মেলা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে সরগরম রাজ্যের রাজনৈতিক মহল ৷ কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলির ব্যাপারে সচেতনা বাড়াতে সব বিজেপি সাংসদকে সাংসদ মেলা আয়োজনের নির্দেশ দেন নরেন্দ্র মোদি। নিয়ম মেনেই মাঠের জন্য আবেদন করেছিল আয়োজক সংস্থা। কিন্তু নানা কারণ দেখিয়ে সভার অনুমতি খারিজ করে দেয় আসানসোল পুরসভা ৷

    আসানসোলে মেলার অনুমতি খারিজ হতেই আদালতের দ্বারস্থ হয় আয়োজক সংস্থা। অস্বস্তিতে পড়ে পুরসভা। বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের পর্যবেক্ষণ, এমন মেলার আয়োজনে রাজ্যের কি কোনও কর্তব্য নেই? রাজ্যের অন্য মেলাতেও কি একই নিয়ম প্রযোজ্য? কেন সাংসদ মেলার অনুমতি দেওয়া হয়নি, তার কোনও ব্যাখ্যাই দিতে পারেনি পুরসভা। বিচারপতির প্রশ্ন করেন, ‘যে মাঠের মালিক রেল, তাতে মেলা করা বা না করার অনুমতি কিভাবে দিতে পারে পুরসভা? ওই মেলার ক্ষেত্রে কিভাবে অনুমতি দেয় পুরসভা? বাকি মেলার ক্ষেত্রে আপনারা নিয়মের তোয়াক্কা করেন? এমন মেলার আয়োজন করা কি পুরসভারও দায়িত্ব নয়? গঙ্গাসাগর মেলার জন্য ময়দানে আগত তীর্থযাত্রীদের জন্য রাজ্যের কী প্রস্তুতি? পুরসভা পার্কিং, বায়ো-টয়লেটের কথা বলছে। ওই মাঠের নিকাশি ব্যবস্থা নিয়ে এতদিন কি করা হয়েছে? পুরসভা মেলার আয়োজকদের স্থানীয় স্কুলগুলি থেকে অনুমতি নিতে বলছে। স্কুল কিভাবে অনুমতি দেবে?’

    আদালতে জানানো হয়, পুরসভা রক্ষণাবেক্ষণ করলেও মাঠের মালিক ভারতীয় রেল। ইতিমধ্যেই রেলের তরফেমেলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

    অনুমতি মেলার পর বাবুল সুপ্রিয়র ট্যুইট অনুমতি মেলার পর বাবুল সুপ্রিয়র ট্যুইট

    পুরসভার পাল্টা দাবি, নামে সাংসদ মেলা হলেও মুম্বই থেকে শিল্পীদের এনে মেলায় অনুষ্ঠান করানো হবে। নিকাশি ব্যবস্থার সঙ্গে এক্ষেত্রে আইন-শৃঙ্খলার প্রশ্নও জড়িত। শেষ পর্যন্ত কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশমতো বুধবারই মেলা মাঠ পরিদর্শন করার পরেও প্রয়োজনীয় অনুমতি দিল না আসানসোল পুরনিগম। পরিদর্শনের পরেও তাদের আগের সিদ্ধান্তেই অনড় থাকে তারা। মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ার জানান, অন্য মাঠে মেলার আয়োজন করলে অনুমতির কথা ভাবা যেতে পারে। তার যুক্তি, রেল মাঠ চারপাশে পাঁচিল দিয়ে ঘেরা। তিনদিনের মেলায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হওয়ার কথা। ফলে অনুষ্ঠান দেখতে লক্ষাধিক মানুষের জমায়েত হওয়ার কথা। কিন্তু ওই রেল মাঠ ছোট হওয়ায় সেখানে দুর্ঘটনা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

    শেষে এদিনের শুনানিতে আয়োজকরা জানান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান নিয়ে আপত্তি ওঠায় তারা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চায় না ৷ এই অনুষ্ঠান ছাড়া মেলা করার অনুমতির জন্য আদালতের কাছে আর্জি জানান আয়োজকরা ৷ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়া মেলা সম্ভব কিনা তা নিয়ে আসানসোল পুরনিগমের কাছে অবস্থান জানতে চায় বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দারের ডিভিশন বে‍ঞ্চ ৷ তাদের সম্মতি মিলতেই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াই মেলার আয়োজন করার শর্তাধীন অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট ৷

    First published:

    Tags: Asansol, Babul Supriya, BJP, Calcutta High Court, Sansad Mela

    পরবর্তী খবর