Home /News /kolkata /
হাতের মুঠোয় অ্যান্টিবায়োটিক

হাতের মুঠোয় অ্যান্টিবায়োটিক

ওষুধের দোকানে বিনা প্রেসক্রিপশনেই মেলে অ্যান্টিবায়োটিক।সামান্য জ্বর হলেও অ্যান্টিবায়োটিক খায় সাধারণ মানুষ।চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া স্ব-চিকিৎসার ফলে কমছে রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা।

  • Share this:

    #কলকাতা:  প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি আইনত নিষিদ্ধ। কিন্তু বাজারে মুড়ি-মুড়কির মতো বিকোয় অ্যান্টিবায়োটিক। ফলে কমছে মানুষের রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা। চিকিৎসকরা মনে করছেন, এই ওষুধ বিক্রির ক্ষেত্রে সাবধানতার অভাব রয়েছে। চিকিৎসা পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ নিজেই নিজের বিপদ ডেকে আনছে বলে মনে করছেন তাঁরা।

    গত শতাব্দীর মাঝামাঝি সময় আবিষ্কার হয় অ্যান্টিবায়োটিক। সালফোনামাইডস, পেনিসিলিন, স্ট্রেপটোমাইসিন থেকে বিভিন্ন সংক্রামক ব্যধি প্রতিরোধ করার ওষুধের নামই অ্যান্টিবায়োটিক। এই ওষুধ ব্যবহারের ফলে সংক্রমণ থেকে মৃত্যুর হার এখন অনেকটাই কমেছে। বেড়েছে মানুষের আয়ু। কিন্তু আয়ু বাড়লেও, রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা কমছে মানুষের। 

    ওষুধের দোকানে বিনা প্রেসক্রিপশনেই মেলে অ্যান্টিবায়োটিক।সামান্য জ্বর হলেও অ্যান্টিবায়োটিক খায় সাধারণ মানুষ।চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া স্ব-চিকিৎসারফলে কমছে রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা।কোনও হাসপাতালে অ্যান্টিবোয়োটিক সেনসিবিলিটি রিপোর্ট দেওয়া হয় না।নেই ইনফেকশন কন্ট্রোল কমিটি।চিকিৎসকরাও বিনা প্রয়োজনে অ্যান্টিবায়োটিক প্রেসক্রাইব করছেন ।

    মানুষের শরীরে ব্যাকটেরিয়া, প্যারাসাইটস, ভাইরাস এবং ফাঙ্গাসের ক্ষমতা যতটা বাড়ছে, ততটাই রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা কমছে। বিজ্ঞানসম্মত ব্যবহার না হওয়ায় এর মূল কারণ। চিকিৎসকরা মনে করছেন, সবার আগে সাধারণ মানুষকেই সচেতন হতে হবে এবিষয়ে।

    First published:

    Tags: Antibiotic, Drug control