• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ALIPUR COURT GIVE RELAXSATION ON MADAN MITRA BAIL CONITION TO MEET CBI OFFICERS

শর্তের গেরো থেকে মদনের মুক্তি

অবশেষে মিলল সমাধান ৷ জামিনের পরস্পর বিরোধী শর্তের ফাঁস থেকে মুক্তি পেলেন মদন মিত্র ৷ শুক্রবার আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালতে সারদাকাণ্ডে অভিযুক্ত মদন মিত্রের জামিনের শর্ত সংশোধনের শুনানি সম্পন্ন হয় ৷

অবশেষে মিলল সমাধান ৷ জামিনের পরস্পর বিরোধী শর্তের ফাঁস থেকে মুক্তি পেলেন মদন মিত্র ৷ শুক্রবার আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালতে সারদাকাণ্ডে অভিযুক্ত মদন মিত্রের জামিনের শর্ত সংশোধনের শুনানি সম্পন্ন হয় ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: অবশেষে মিলল সমাধান ৷ জামিনের পরস্পর বিরোধী শর্তের ফাঁস থেকে মুক্তি পেলেন মদন মিত্র ৷ শুক্রবার আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালতে সারদাকাণ্ডে অভিযুক্ত মদন মিত্রের জামিনের শর্ত সংশোধনের শুনানি সম্পন্ন হয় ৷ মামলার শেষে মদন মিত্রর জামিনের শর্ত সংশোধন করে বিচারক জানান, সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করতে ভবানীপুর থানা এলাকার বাইরে যেতে পারবেন মদন মিত্র ৷ জামিনের আরেক শর্ত সংশোধনের আবেদনের শুনানি ২০ সেপ্টেম্বর ৷

    এদিন আদালতে সিবিআইয়ের আইনজীবী জানান, মদন মিত্রের জামিনের শর্ত সংশোধন নিয়ে সিবিআইয়ের কোনও বক্তব্য নেই। আদালত জামিনের নির্দেশ দিয়েছে। তাই জামিনের শর্ত ব্যাখ্যা করে দিক আদালতই। সিবিআই আদালতে শুধু উপস্থিত আছে মাত্র।

    আদালতের অনুমতি পাওয়ার পরই সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মদন মিত্র ৷

    ২২ মাসের বন্দীদশা ও বহু শুনানির পর গত ৯ সেপ্টেম্বর অবশেষে মদন মিত্রের জামিন মঞ্জুর করে নিম্ন আদালত ৷ জামিনের পরিবর্তে বেশ কতগুলি শর্ত দেয় আলিপুর কোর্ট ৷ তার মধ্যে লেখা দুটি শর্ত নিয়েই সমস্যায় পড়েন মদন মিত্র ৷

    জামিননামায় লেখা রয়েছে তদন্তকারী অফিসারের সঙ্গে সপ্তাহে একদিন দেখা করতে হবে জামিনে মুক্ত মদন মিত্রকে ৷ সেক্ষেত্রে তাঁকে সিজিও কমপ্লেক্সে যেতে হবে ৷ এই শর্ত নিয়েই বিপাকে পড়েছেন ‘অভাবশালী’ নেতা ৷ কারণ, জামিনের আরেক শর্তে পরিষ্কার করে লেখা রয়েছে ভবানীপুর থানা এলাকার বাইরে বেরোতে পারবেন না এই তৃণমূল নেতা ৷

    তাই সিজিও কমপ্লেক্সে গিয়ে সারদা মামলার তদন্তকারী অফিসারদের সঙ্গে দেখা করা তাঁর পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়ে। নির্দেশনামায় ত্রুটি সংশোধনের জন্য আদালতে আবেদন করেন মদন মিত্র। সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে আদালত জামিনের শর্ত শিথিল করে শুধু মাত্র সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করার জন্য ভবানীপুর থানা এলাকার বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেয় ৷

    কালীঘাটের বাড়িতে ফিরতে চেয়েও আলিপুর আদালতেই দ্বিতীয় আবেদন করেছেন মদন মিত্র। নির্দেশনামায় থানা ভবানীপুরের বদলে কালীঘাট থানা করার আবেদন জানিয়েছেন তিনি। এই আবেদনের শুনানির জন্য সময় চেয়েছে সিবিআই।

    বেল অর্ডারের একটি ক্লারিকাল মিসটেকে বাড়ি ফেরা হয়নি মদন গোপাল মিত্রের ৷ প্রকৃত ঠিকানা ভবনীপুর থানা এলাকা। কিন্তু বেল অর্ডারে তা লেখা রয়েছে কালীঘাট থানা এলাকা। তাই বাড়ি ফিরতে না পেরে এলগিন রোডের একটি হোটেলই আপাতত একসময়ের দাপুটে নেতা মদন মিত্রের বর্তমান ঠিকানা ৷

    First published: