কাউন্সিলর জেলে যেতেই আতঙ্ক মুক্তি, উঠে আসছে চাপা পড়া বহু অভিযোগ

কাউন্সিলর জেলে যেতেই তাঁর বিরুদ্ধে আরও তোলাবাজি ও হুমকির অভিযোগ প্রকাশ্যে আসছে ৷

  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:  কাউন্সিলর জেলে যেতেই  তাঁর বিরুদ্ধে আরও তোলাবাজি ও হুমকির অভিযোগ প্রকাশ্যে আসছে ৷ ২০ লক্ষ টাকা তোলা চাওয়ায় কারও বাড়ি নির্মাণের কাজ বন্ধ, কেউ আবার বিধাননগরের ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে বাড়ি দখলের অভিযোগ তুলছেন।

    শাসক দলের কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে চাপা পড়ে থাকা বহু অভিযোগ সামনে আসছে ৷ কাউন্সিলর অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় গ্রেফতার হতেই শুরু হয়েছে  থমকে থাকা নির্মাণকাজ।  এলাকাবাসীদের দাবি, অনিন্দ্য আতঙ্ক থেকে হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা।

    কাউন্সিলর জেলে যেতেই সল্টলেকে শুরু অনিন্দ্য আতঙ্কে থমকে থাকা নির্মাণকাজ। শুধু সন্তোষ লোধ বা AC-৫৮- এর বাসিন্দাই নন, কাউন্সিলরের খুনের হুমকি ও তোলাবাজির ভয়ে সন্ত্রস্ত সল্টলেকের একাধিক বাসিন্দা। জয়নগরের বাসিন্দা যমুনা মণ্ডলের অভিযোগ, সল্টলেকের বিডি ব্লকে ৩৮৬ নং প্লটে বাড়ি করতে গিয়ে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার শিকার হন তাঁরা ৷

     যমুনা মণ্ডলের আত্মীয় জানান, ২০ লক্ষ টাকা চায় অনিন্দ্যর দলবল, না দিতে পারায় বাড়ির সদ্য তৈরি হওয়া পাঁচিল ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয় ৷

    শুধু তাই নয়, অভিযোগ, কাউন্সিলর তোলা আদায় করতে দর কষাকষিও করতেন। প্রথমে ২০ লক্ষ, পরে ১৫, শেষে পাঁচ লক্ষে রফা ৷ এমন অভিযোগও তুলেছেন অনেকে ৷

    কাউন্সিলরের দাদাগিরির অভিযোগ তুলেছেন বিধাননগরের আরও  এক বাসিন্দা। বিডি ব্লকেরই ৩৯৬ নম্বর বাড়ি দখল করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে।

    একাধিক তোলাবাজির অভিযোগে মঙ্গলবার থেকে জেল হেফাজতে বিধাননগরের ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়। এলাকাবাসীদের দাবি, অনিন্দ্যর গ্রেফতারিতে হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা।

    First published:

    Tags: Anindaya Chatterjee, Arrested TMC Councillor, Saltlake Citizen's Complain, TMC Councillor