বাড়ল তাপমাত্রা, ডিসেম্বরের দুপুরেও আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি কলকাতায়

বাড়ল তাপমাত্রা, ডিসেম্বরের দুপুরেও আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি কলকাতায়
  • Share this:

Biswajit Saha

#কলকাতা: একে আরব সাগরে নিম্নচাপ। দোসর পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। দুর্বল উত্তরে হাওয়া। পূবালী হাওয়ায় চড়ছে পারদ। ডিসেম্বরের দুপুরেও আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি কলকাতায়। সামনের সপ্তাহে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি জোরালো শীতের সম্ভাবনা।

আরব সাগরে ঘূর্ণিঝড় সোমালিয়ায় নিম্নচাপ হয়ে চলে গিয়েছে। নতুন করে দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগরে আবারও নিম্নচাপ ঘনীভূত। নিম্নচাপের টানে উত্তরে হওয়ার গতি পরিবর্তন। প্রভাব বাড়াচ্ছে পূবালী হাওয়ার।

সকাল সন্ধে হালকা শীতের আমেজ থাকলেও দুপুরে রীতিমতো আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি। বাতাসে জলীয় বাষ্প বেশি থাকার কারণে এই অস্বস্তি।আংশিক মেঘলা আকাশ থাকার কারণে রাতের তাপমাত্রা বাড়ছে। সকালে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত কুয়াশা।

তাপমাত্রা আরও বাড়ল কলকাতায়। স্বাভাবিকের ৩ ডিগ্রির ওপরে উঠল পারদ। আরব সাগরে নিম্নচাপের পরোক্ষ প্রভাব। উত্তরে হাওয়ায় দিক পরিবর্তন। পূবালী হাওয়া প্রভাব এরাজ্যে। বুধবার জম্মু-কাশ্মীরে ঢুকবে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা।

আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রায় খুব একটা পরিবর্তন নেই। আংশিক মেঘলা আকাশ।সকালে বিক্ষিপ্তভাবে হালকা কুয়াশা। সকাল সন্ধ্যা হালকা শীতের আমেজ।জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও সামান্য থাকবে।

আজ, রবিবার কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ। সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ৷ স্বাভাবিকের থেকে যা ৩ ডিগ্রি বেশি। গতকাল শনিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে যা ৩ ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ ৫১ থেকে ৯৯ শতাংশ।

ঘূর্ণিঝড় পবন নিম্নচাপে পরিণত হয়ে এখন সোমালিয়ায়। দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগরে সুস্পষ্ট নিম্নচাপ।পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে আরো গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে।

নতুন করে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ডুকছে বুধবার রাতে জম্মু-কাশ্মীরে।আবহাওয়াবিদদের অনুমান এবারের পশ্চিমী ঝঞ্ঝা অনেক নিচে দিয়ে যাবে। এর জেরে ১২ এবং ১৩ ডিসেম্বর অর্থাৎ সপ্তাহান্তে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হবে উত্তর ও মধ্য ভারতের রাজ্যগুলিতে। সপ্তাহের মাঝেই বৃহস্পতিবার থেকে শিলাবৃষ্টি ও তুষারপাতের সম্ভাবনা জম্মু-কাশ্মীর, হিমাচল প্রদেশ উত্তরাখন্ড-সহ হিমালয় সংলগ্ন রাজ্যগুলিতে।

এই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে ভাল তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তার ফলে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সেই শীতল হাওয়া ঢুকতে পারে পশ্চিমবঙ্গেও। অভাবীদের অনুমান, পশ্চিমী ঝঞ্ঝা চলে গেলে পরের পশ্চিমী ঝঞ্ঝা আসতে যদি বিলম্ব হয় তাহলে শীতের একটা ভাল স্পেল পাওয়া যেতে পারে ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতেই।

First published: 10:34:31 AM Dec 08, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर