corona virus btn
corona virus btn
Loading

'প্রণাম'-এর উদ্যোগে নেচার পার্কে হুল্লোড়-পিকনিক প্রবীণদের, সৌজন্যে কলকাতা পুলিশ

'প্রণাম'-এর উদ্যোগে নেচার পার্কে হুল্লোড়-পিকনিক প্রবীণদের, সৌজন্যে কলকাতা পুলিশ
প্রবীণদের পিকনিক

সপ্তাহের প্রথম দিন যেন একটা স্বপ্ন, সকাল হল কিন্তু রোজের মত দিনটা গেল না। দিনটা শুরু হল অনেকটাই অন্যরকম ভাবে।

  • Share this:

সুশোভন ভট্টাচার্য

#কলকাতা: এই রকম রোজ যায় না৷ একলা বসে থাকা, গোটা দিন কাটানো কঠিন। রোজের নিয়ম বদলায় না, শুধু বদল হয় দিনটির। দুশ্চিন্তাও কম নয়, নিজের সঙ্গে মাঝে মধ্যেই চলে কথা বলা।

সপ্তাহের প্রথম দিন যেন একটা স্বপ্ন, সকাল হল কিন্তু রোজের মত দিনটা গেল না। দিনটা শুরু হল অনেকটাই অন্যরকম ভাবে। দেখতে দেখতে সকাল থেকে দুপুর আবার বিকেল। 'প্রনামের' উদ্যোগে নিউ আলিপুর থানার প্রায় তিনশো জন প্রবীণদের সোমবার গন্তব্য ছিল তারাতলার নেচার পার্ক। সোমবার সকাল কখন হবে তার অপেক্ষা ছিল অনেক, যেমন হয় ছোট বেলায়। সকাল থেকেই বাসে করে যাওয়া, খাওয়া, আড্ডা। আনন্দ কম নয়, নাগরদোলা দেখে অনেকেই ছোটদের মত সামলাতে পাররেন না লোভ।

রোজ এদিক থেকে ওদিক কিন্তু বেশিরভাগ সময় চার দেওয়ালের মধ্যে। একটি ফাঁকা পার্কে যেন প্রবীণরাই 'কিশোর'। এদিন সকাল গড়িয়ে দুপুর হতেই এল বিভিন্ন খাবার৷ অনেকেই খাবারের নিয়ম প্রচুর, তবে এদিন সবার সঙ্গে আড্ডা দিতে দিতে খাবার। এ যেন এক স্বপ্নের দিন। দুপুরের খাবার শেষ করেই চলল আবার আড্ডা। এদিন ছিল সেলফি জোন। বাড়ির অনেকেই ছবি তোলেন তবে সেলফি জোন দেখে নিজের মোবাইল নিয়ে শুরু হল সেলফি।

যাঁরা এসেছেন তাদের বেশিভাগ ছেলে-মেয়ে থাকেন বিদেশে। তাদের যোগাযোগ আছে দেখা নেই, কথা হয় সময় মেনে। তাই নিঃসঙ্গতা যেন প্রতি মুহূর্তে। নিউ আলিপুর থানার ওসি অমিত শঙ্কর মুখোপাধ্যায় জানান, তাদের শুধু নিরাপত্তা নয়, আনন্দ দিয়ে তাদের খুশি রাখাটাও দায়িত্ব। এ দিন ছিলেন থানার বিভিন্ন পুলিশ অফিসারা। প্রবীণদের সঙ্গে সারাদিন কাটিয়ে নিজেরাও অনেকটাই অন্য স্বাদের সন্ধান পেলেন। অনেকেই দিনের শেষ বললেন, একদিন আনন্দ যেন ফ্রেম বন্দি হয়। পুলিশের থেকে জানতেও চাইলেন আবার কবে হবে?

Published by: Arindam Gupta
First published: January 6, 2020, 12:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर