কোকেনকাণ্ডে নাম নেই পামেলার, ৭৪ দিনের মাথায় চার্জশিট পেশ করল কলকাতা পুলিশ 

কোকেনকাণ্ডে নাম নেই পামেলার, ৭৪ দিনের মাথায় চার্জশিট পেশ করল কলকাতা পুলিশ 

চার্জশিটে নাম নেই বিজেপি যুব মোর্চা নেত্রী পামেলা গোস্বামী, পামেলার বন্ধু প্রবীর দে ও নিরাপত্তারক্ষী সোমনাথ গোস্বামীর | এই তিনজনকে কার্যত ক্লিনচিট দেওয়া হল চার্জশিট থেকে |

চার্জশিটে নাম নেই বিজেপি যুব মোর্চা নেত্রী পামেলা গোস্বামী, পামেলার বন্ধু প্রবীর দে ও নিরাপত্তারক্ষী সোমনাথ গোস্বামীর | এই তিনজনকে কার্যত ক্লিনচিট দেওয়া হল চার্জশিট থেকে |

  • Share this:

    ARPITA HAZRA

    #কলকাতা:   নিউ আলিপুর কোকেন কাণ্ডে কলকাতা  পুলিশ এন্টি নারকোটিকস বিভাগ  ৭৪ দিনের  মাথায় চার্জশিট জমা দিল | চার্জশিটে   নাম নেই বিজেপি যুব মোর্চা নেত্রী পামেলা গোস্বামী, পামেলার বন্ধু   প্রবীর দে ও নিরাপত্তারক্ষী  সোমনাথ গোস্বামীর | এই তিনজনকে কার্যত  ক্লিনচিট  দেওয়া হল চার্জশিট থেকে |   পামেলার আইনজীবী  কৈলাশ তামুলী জানান, পামেলাকে  ফাঁসানো হয়েছিল |  তদন্তে  উঠে এসেছে সবটাই | তাই পামেলা সহ তিন জনের নাম নেই চার্জশিটে |

    পুলিশ  সূত্রে খবর, চার্জশিটে নাম রয়েছে মোট আট অভিযুক্তর | আদালত  সূত্রে খবর, চার্জশিটে আট জনের নাম হল রাকেশ সিং, জিতেন্দ্র কুমার সিং, সুরাজ কুমার সা, আরিয়ান দে, অমৃতা সিং, দেইম আখতার, ফারহান আহমেদ ও  অমৃত রাজকে পলাতক দেখানো হয়েছে |  অর্থাৎ  এই আট  জনের চার্জশিটে  নাম রয়েছে |  এদের মধ্যে একজনকে পলাতক  হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে  চার্জশিটে | সোমবার  আলিপুর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুব্রত মুখোপাধ্যায়। এজলাসে জমা পড়ল চার্জশিট |  নারকোটিকস  কোর্ট বন্ধ থাকায় ওই চার্জশিট  আলিপুর সিজেএম  কাছে পেশ করা হয় | নারকোটিকস আদালতে এরপর ওই চার্জশিট  ফরওয়ার্ড করা হবে বলে আদালত সূত্রে খবর | পামেলার বাবা কৌশিক গোস্বামীর দাবি, তাদের মেয়ে পামেলাকে চক্রান্ত করে ফাঁসিয়েছে রাকেশ সিং |  তার উপযুক্ত শাস্তির দাবি করেছেন  |

    পুলিশ  সূত্রে খবর, প্রায় বারোশো পাতার এই চার্জশিট  আলিপুর আদালতে পেশ করা হয় কলকাতা পুলিশের এন্টি নারকোটিকস  বিভাগের পক্ষ থেকে | এ ছাড়া আশি জন সাক্ষী রয়েছে এই ঘটনায় |  ধৃতদের বিরুদ্ধে, মাদক আইন  সহ একাধিক ধারায় মামলা উল্লেখ চার্জশিটে |

    পুলিশ  সূত্রে খবর, গত  ১৯ ফেব্রুয়ারী  ঘটনাটি ঘটে নিউ আলিপুরে |  একটি নামী রেস্তোরা  সামনে গাড়ি নিয়ে আসতেই পুলিশ ঘিরে ফেলে পামেলা ও তার  সঙ্গীদের |  গাড়ি থেকে  উদ্ধার হয় কোকেন  |  সেই ঘটনায় পামেলা ও প্রবীর, সোমনাথকে গ্রেফতার করে নিউ আলিপুর  থানা | এরপর  জেরা করে রাকেশ সিং সহ বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতার  করে কলকাতা পুলিশ | পুলিশের দাবি, রাকেশ সিং, মূলত  সুইটি ও অন্য দুই মাদক বিক্রেতার থেকে কোকেন  এনেছিল | পামেলার গাড়িতে প্ল্যান  করে কোকেন  রেখেছিল পলাতক অমৃত রাজ | এ ছাড়াও অমৃত বাকি অভিযুক্তদের বিভিন্ন ভাবে সাহায্য  করেছিল |  তার খোঁজে তল্লাশি করছে গোয়েন্দারা | কোকেনের এই ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য  ছড়ায় রাজনৈতিক  মহলে | অবশেষে  চুয়াত্তর দিনের মাথায় চার্জশিট পেশ করল কলকাতা পুলিশ |

    Published by:Simli Raha
    First published: