সেতুর ওপর দাঁড়িয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণহানি নয়! তৎপর কলকাতা পুলিশের বাড়তি নজরদারি

সেতুর ওপর দাঁড়িয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণহানি নয়! তৎপর কলকাতা পুলিশের বাড়তি নজরদারি
বিদ্যাসাগর সেতুর উপর তারাও নজরদারি চালাবে | এবং মোটরসাইকেল পেট্রোলিং-এর ব্যবস্থা থাকছে | ট্রাফিক পুলিশের তরফেও নজরদারি চালানো হবে | যাতে কেউ গাড়ি থামিয়ে স্টান্ট বা সেলফি তুলতে না পারেন সেদিকে বিশেষ নজর থাকছে কলকাতা পুলিশের |

বিদ্যাসাগর সেতুর উপর তারাও নজরদারি চালাবে | এবং মোটরসাইকেল পেট্রোলিং-এর ব্যবস্থা থাকছে | ট্রাফিক পুলিশের তরফেও নজরদারি চালানো হবে | যাতে কেউ গাড়ি থামিয়ে স্টান্ট বা সেলফি তুলতে না পারেন সেদিকে বিশেষ নজর থাকছে কলকাতা পুলিশের |

  • Share this:

    #কলকাতা: দ্বিতীয় হুগলি সেতুতে স্টান্ট দেখাতে গিয়ে দুর্ঘটনার জেরে এবার নয়া পদক্ষেপ কলকাতা  পুলিশের |  গঙ্গার উপর দ্বিতীয় হুগলী সেতুর উপর ফেন্সিং বা জাল দিয়ে দুপাশে আটকে  দেওয়ার  চিন্তা ভাবনা করছে  লালবাজার |  পুলিশ সূত্রে খবর, সেতুর উপর থাকছে বাড়তি নজরদারি পুলিশের | এছাড়াও রোজ প্রায় ১০ লক্ষ গাড়ি চলাচল করে | প্রতিদিন গাড়ি থামিয়ে চেক করলে যানজট হবে | তাই হঠাৎ করে পুলিশ  পেট্রোলিং -এর ব্যবস্থা থাকছে|

    বিদ্যাসাগর সেতুর উপর তারাও নজরদারি  চালাবে | এবং মোটরসাইকেল পেট্রোলিং-এর ব্যবস্থা থাকছে | ট্রাফিক  পুলিশের তরফেও নজরদারি চালানো হবে | যাতে কেউ গাড়ি থামিয়ে স্টান্ট  বা সেলফি  তুলতে না পারেন সেদিকে বিশেষ নজর থাকছে কলকাতা  পুলিশের | এছাড়াও সিসিটিভি মাধমেও  মনিটরিং  করা হবে | পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনার দিন ওই যুবকেরা  একটি ছোটা  হাতির মতো গাড়ি নিয়ে এসেছিল | মিনিট ১০-১৫ মধ্যে ওই ঘটনা ঘটায় | স্বাভাবিক ভাবে সেতুর উপর গাড়ি দাঁড় করানোর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে | পুলিশের নজর এড়িয়ে কী করে ওই ছোট ম্যাটাডোর  দাঁড় করিয়ে এই কাণ্ড ঘটাল তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন | আর  সেকারণেই কলকাতা পুলিশের তরফে বিশেষ অতিরিক্ত নিরাপত্তা ও কড়া  নজরদারি ব্যবস্থা করেছে কলকাতা  পুলিশ |য


    ঘটনা প্রসঙ্গে  বলা যায় , গত  রবিবার  দুপুর একটা নাগাদ নজরদারি এড়িয়ে সেতু থেকে গঙ্গা তে ঝাঁপ দেন তস্তগির আলম  ও মোহাম্মদ জাকির সর্দার | স্টান্ট দেখাতে গিয়ে এমন কাণ্ড বলে দাবি পুলিশের | একজন যুবককে  উদ্ধার করা গেলেও অপর জনকে উদ্ধার করা সম্ভব  হয়নি | তবে জানা গিয়েছে একটি ভিডিও তৈরি করতে গিয়ে এই ঘটনা | সেখানে কয়েকজন বন্ধু উৎসাহ  দিছে গঙ্গায় ঝাঁপ দেওয়ার জন্য |  এই ভিডিও ভাইরাল  হতেই শিউরে  উঠছেন অনেকেই |  তবে পুলিশের  চোখ  এড়িয়ে ছোটা হাতি গাড়ি থামিয়ে যেভাবে ওই যুবকেরা স্টান্ট এ মত্ত  হয়ে এই বিপদ ডেকে এনেছেন বলে মনে করছেন  সকলেই |  প্রশ্ন হল এরপরও  কি স্টান্টের প্রবণতা কমবে? জীবনকে বাজি রাখা বন্ধ করে  রুখে দেওয়া যাবে মূল্যবান তরতাজা প্রাণ?  সেই উত্তর সময়ই  দেবে |

    ARPITA HAZRA

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    লেটেস্ট খবর