পুর-ভোটের আগে পার্কিংয়ে কড়া কলকাতা পুরসভা

পুর-ভোটের আগে পার্কিংয়ে কড়া কলকাতা পুরসভা

ভোটের আগে পুরবাসীদের মন জয় করতে পার্কিং নিয়ে কড়া হল পুরসভা

  • Share this:

#কলকাতা: ভোটের আগে পুরবাসীদের মন জয় করতে পার্কিং নিয়ে কড়া হল পুরসভা। বেআইনি পার্কিং হলেই অভিযোগ জানান পুরসভার টোল ফ্রি নম্বর, ওয়েবসাইটে। শহর জুড়ে দুটি প্রচার গাড়ি ট্যাবলো ঘুরবে সচেতনতা বাড়াতে। পার্কিংয়ে পুরসভার নির্দিষ্ট ফি থেকে বেশি নিলেই অভিযোগ জানান টোল ফ্রি নম্বর-এ। নম্বরটি হল 155360/18003453375 । অভিযোগ জানাতে পারেন কলকাতা পুরসভার ওয়েবসাইট www.kmcgov.in -এ ।

কলকাতা পুরসভার নিয়ম অনুযায়ী নির্দিষ্ট রং দেওয়া জায়গাতেই গাড়ি পার্কিং করতে হবে।পার্কিং আদায়কারীদের জন্য নির্দিষ্ট নীল রঙের পোশাক রয়েছে কলকাতা পুরসভার। বৈধ রশিদ দিলে তবেই পার্কিং ফি দিন। মেশিনে দেওয়া রশিদই একমাত্র বৈধ। কোনওরকম কাগজের রশিদ কলকাতা পুরসভার পার্কিংয়ের ক্ষেত্রে বৈধ নয়। কলকাতা পুরসভার নিয়ম অনুযায়ী সকাল ৭ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত দু চাকার গাড়ি অর্থাৎ বাইকের জন্য প্রতি ঘণ্টায় মাত্র পাঁচ টাকা পার্কিং ফি দিতে হবে। ছোট চার চাকার গাড়ির জন্য প্রতি ঘণ্টায় দিতে হবে ১০ টাকা, বড় গাড়ি বা বাসের জন্য প্রতি ঘণ্টায় দিতে হবে কুড়ি টাকা। দিনের বেলার পার্কিং ফি রাতের বেলায় গ্রাহ্য নয়। রাত ১০ টা থেকে সকাল ৭ টার জন্য দিতে হবে নাইট পার্কিং ফি। নাইট পার্কিং ফি ছোট গাড়ির ক্ষেত্রে প্রতি ঘণ্টায় ৩০ টাকা। বড় গাড়ির ক্ষেত্রে প্রতি ঘণ্টায় ৬০ টাকা।

বিভিন্ন জায়গা থেকে অভিযোগ আসছিল পুরসভার পার্কিং নিয়ে বেআইনি ভাবে টাকা নেওয়া হচ্ছে। অনেক জায়গায় নির্দিষ্ট এলাকার বাইরেই রাস্তার ওপরে পার্কিং করা হচ্ছে গাড়ি। সে বিষয়ে জন সচেতনতা তৈরি করতে এবার পুর উদ্যোগে ঘোরানো হবে একটি ট্যাবলো। এই ট্যাবলোর গায়ে তিন ভাষায় সতর্ক বার্তা দিয়ে ঘোরানো হবে শহরের বিভিন্ন অঞ্চলে।

সতর্ক বার্তায় পরিস্কার করে লেখা আছে, নির্দিষ্ট লাইন বা জায়গায় পার্কিং করার জন্য। একইসঙ্গে পার্কিং বাবদ প্রদেয় অর্থ নীল রঙের পোশাক পড়া ব্যক্তিকে দিতে হবে। অর্থ প্রদানের সময় ঐ ব্যক্তির নির্দিষ্ট ব্যাজ ও লোগো দেখে নেওয়ার কথাও বলা হয়। পাশাপাশি হস্ত চালিত pos মেশিনের রশিদ নিয়ে পার্কিং ফি প্রদান করতে হবে। এই দুটি প্রচার গাড়ির উদ্বোধন করে মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, ' যেখানে পার্কিং বোর্ড আছে সেখানেই পার্কিং ফি দিয়ে গাড়ি রাখুন। প্রয়োজনীয় ওয়েবসাইট-এ কোথায় কোথায় পার্কিং স্পেস আছে তা দেখে নিন। অভিযোগ আসছে অনেক জায়গায় ১০ টাকার পরিবর্তে ৩০-৪০ টাকাও নেওয়া হয়। কখনওই বেশি পার্কিং ফ্রিজ দেবেন না কাউকে। এজন্যই প্রচারকারী সঙ্গে টোল ফ্রি নাম্বার আছে। অভিযোগ থাকলে ফোন করে জানান কলকাতা পুরসভাকে। পুরসভা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।'

BISWAJIT SAHA

First published: March 5, 2020, 7:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर