Home /News /kolkata /
Kolkata Municipal Corporation : নিম্নচাপের ভ্রুকুটিতে জমা জলের নিকাশি নিয়ে কলকাতা পুরসভার চিন্তা নিষিদ্ধ প্লাস্টিক

Kolkata Municipal Corporation : নিম্নচাপের ভ্রুকুটিতে জমা জলের নিকাশি নিয়ে কলকাতা পুরসভার চিন্তা নিষিদ্ধ প্লাস্টিক

সতর্কতা অনুযায়ী আগেভাগেই কোমর বেঁধে নামছে কলকাতা পুরসভা

সতর্কতা অনুযায়ী আগেভাগেই কোমর বেঁধে নামছে কলকাতা পুরসভা

Kolkata Municipal Corporation : ১০০ মিলিমিটার পর্যন্ত অর্থাৎ ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা রয়েছে কলকাতায়। সতর্কতা অনুযায়ী আগেভাগেই কোমর বেঁধে নামছে কলকাতা পুরসভা

  • Share this:

কলকাতা : উত্তর পশ্চিম ও পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে জলীয় বাষ্প ঘনীভূত হয়ে পরিণত হয়েছে সুস্পষ্ট নিম্নচাপ অক্ষরেখায়। আগামীকাল থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে। ১০০ মিলিমিটার পর্যন্ত অর্থাৎ ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতা রয়েছে কলকাতায়। সতর্কতা অনুযায়ী আগেভাগেই কোমর বেঁধে নামছে কলকাতা পুরসভা (Kolkata Municipal Corporation)।

ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে যাতে কোনওরকম ভাবে জনজীবন না বিপর্যস্ত হয় সেদিকে বিশেষ নজর দিতে চলেছে কলকাতা পুরসভার নিকাশি বিভাগ। মেয়র ববি হাকিম আগাম সতর্ক করে আলোচনা সেরেছেন নিকাশি বিভাগের সঙ্গে। যে যে ওয়ার্ডে জল জমার সমস্যা রয়েছে সেই ওয়ার্ডগুলির দিকে বিশেষ নজর দেওয়ার কথা বলেছেন ফিরহাদ হাকিম। সোমবার কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে পুরসভার অনুষ্ঠানে গিয়ে আসন্ন নিম্নচাপের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানান, " কলকাতা পুরসভা সাধ্যমতো পাম্প নিয়ে তৈরি থাকবে জমা জলের সমস্যা মোকাবিলা করতে। "

আরও পড়ুন : মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, কর্নাটক, রাজস্থানের বিস্তীর্ণ অংশে ভারী বৃষ্টি, জারি লাল ও কমলা সতর্কতা

তাঁর আরও সংযোজন, " আগের তুলনায় জমা জল সরানোয় অনেক উন্নতি করেছে পুরসভা। পাম্পের সংখ্যা বাড়ানো, বড়  পাইপের ব্যবহার এই সমস্ত খরচসাপেক্ষ কাজের ক্ষেত্রেও টাকার সমস্যা থাকলেও অনেকটা করা সম্ভব হয়েছে। অন্তত বৃষ্টি হওয়ার সময়ে জল দাঁড়ালেও পরে ৩-৪ ঘন্টায় নামিয়ে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে সেই জল। আগে সেই জল নামতে প্রায় ৩-৪ দিন লেগে যেত"।

আরও পড়ুন :  ব্যাপক উত্তাল সমুদ্র, আবহাওয়ায় ব্যাপক রদবদল, বাংলার উপকূলে লাল সতর্কতা জারি

মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হলেই জমা জলে সমস্যায় পড়ে মধ্য কলকাতার সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ-সহ সংলগ্ন বেশ কিছু রাস্তা। এই প্রসঙ্গে মেয়র জানান, " সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ দিয়ে গেলে এখনো প্লাস্টিকের বহুল ব্যবহার লক্ষ করতে পারা যায়। এই প্লাস্টিক গিয়ে জমা হচ্ছে নিকাশি নালার মধ্যে। সামগ্রিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে গোটা এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা।"

নিষিদ্ধ করার পরেও প্লাস্টিকের এই বহুল ব্যবহার উদ্বেগ বাড়াচ্ছে কলকাতা পুরসভার। মানুষের সচেতনতাই একমাত্র উপায় এবং গণমাধ্যমে সচেতনতার প্রচার করেই প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাতে হবে এমনটাই পরামর্শ দেন কলকাতার মহানাগরিক।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Kolkata Municipal Corporation

পরবর্তী খবর