corona virus btn
corona virus btn
Loading

যাত্রীর অসতর্কতাতেই মৃত্যু, পার্ক স্ট্রিটে সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুর দায় এড়াল মেট্রো

যাত্রীর অসতর্কতাতেই মৃত্যু, পার্ক স্ট্রিটে সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুর দায় এড়াল মেট্রো
File Photo
  • Share this:

#কলকাতা: পার্ক স্ট্রিটে যাত্রী মৃত্যুর দায় এড়াল মেট্রো। কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটির রিপোর্ট অনুযায়ী, যাত্রীর অসতর্কতাতেই দুর্ঘটনা ঘটে। তাই মেট্রোর আইন অনুযায়ী, ক্ষতিপূরণও পাবে না মৃতের পরিবার। গত ১৩ জুলাই, পার্ক স্ট্রিট স্টেশনে মেট্রোর দরজায় হাত আটকে মৃত্যু হয় সজল কাঞ্জিলালের।

গত ১৩ জুলাই সন্ধে ছ’টা চল্লিশের ঘটনা। পার্ক স্ট্রিট মেট্রো স্টেশনে তখন রোজকার চেনা ব্যস্ততা। ট্রেনে ওঠা-নামা করতে যাত্রীদের হুড়োহুড়ি। হঠাৎই বিপত্তি। কবি সুভাষগামী এসি মেট্রোয় উঠতে গিয়ে হাত আটকে যায় সজল কাঞ্জিলাল নামে এক যাত্রীর। চলন্ত ট্রেনের দরজায় হাত আটকানো অবস্থায়, বাইরে থেকে ঝুলতে থাকেন তিনি। টানেলের ভিতর ট্রেন থামলে, নামতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় সঞ্জল কাঞ্জিলালের। সেই ঘটনার দু’মাসের মাথায় রিপোর্ট দিল কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটি।

সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুর দায় চাপল তাঁরই ঘাড়ে। আর এই রিপোর্টকে হাতিয়ার করেই এক যাত্রীর মৃত্যু থেকে হাত ধুয়ে ফেলল কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

মেট্রো রেলওয়ে অ্যাক্ট ২০১৩-র - ২.০২ বি ধারা অনুযায়ী, কোনও ব্যক্তি অসতর্কভাবে যাতায়াত করায় মৃত্যু হলে তার দায় মেট্রোর নয়। যাত্রীর অসতর্কতায় মৃত্যু হলে তার জন্য কোনও ক্ষতিপূরণও পাবে না মৃতের পরিবার ৷

সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুর পর থেকেই মেট্রো কর্তৃপক্ষ বলে আসছিল, দুর্ঘটনার দায় তাদের নয়। মেট্রোর সেই দাবিতেই সিলমোহর দিল কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটির রিপোর্ট। তবে প্রশ্ন উঠছে অন্য জায়গায়। তদন্তে নেমে মাত্র একজন মেট্রো যাত্রীর সাক্ষ্য গ্রহণ করতে পেরেছিলেন CRS। মেট্রোর আধুনিক মেধা রেকের যান্ত্রিক ত্রুটি নিয়েও প্রশ্ন উঠেছিল। তাই CRS-এর তদন্ত রিপোর্টে কি সত্যিটা উঠে এল? প্রশ্ন রয়েই গেল।

আরও দেখুন:

First published: September 12, 2019, 8:02 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर