কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিমান ছাড়ল চার ঘণ্টা দেরিতে! যাত্রীরা গেলেন দিল্লি হয়ে,শুরুতেই হোঁচট খেল কলকাতা-লন্ডন উড়ান

বিমান ছাড়ল চার ঘণ্টা দেরিতে! যাত্রীরা গেলেন দিল্লি হয়ে,শুরুতেই হোঁচট খেল কলকাতা-লন্ডন উড়ান
File Photo

কলকাতা থেকে সরাসরি লন্ডন যাওয়া হল না যাত্রীদের। সকাল ১০টায় উড়ান গেল রাজধানী দিল্লি। সেখান থেকে গেল লন্ডন।

  • Share this:

#কলকাতা: কথা ছিল, ফ্লাইট ছাড়বে ভোর ৬টা ১০ মিনিটে। কিন্তু বাস্তবে তা হল না। এমনকী, কলকাতা থেকে সরাসরি লন্ডন যাওয়াও হল না। সকাল ১০টায় উড়ান গেল রাজধানী দিল্লি। সেখান থেকে গেল লন্ডন।

কারণ একটাই, লক্ষ্মীর অনুপস্থিতি। যে হারে যাত্রী হবে ভাবা গিয়েছিল, তা তো হলই না। উল্টে মাত্র জনা কুড়ি যাত্রী নিয়ে বিমান উড়ল দিল্লির উদ্দেশে। তা-ও বিমান ছাড়ল চার ঘণ্টা দেরিতে। সকাল দশটায়। তারপর ওখান থেকে আরও যাত্রী যোগ করে মোট ৬৬ জন যাত্রী নিয়ে বিমান রওনা দিল লন্ডনের উদ্দেশে।

এখানেই ব্যর্থতার শেষ নয়, যে উড়ান রাত দু'টোয় লন্ডন থেকে কলকাতা এল, তারও অবস্থা তথৈবচ। মাত্র ১৪ জন যাত্রী নিয়ে ওই বিমানটি এল লন্ডন থেকে।

প্রায় ১১ বছর পরে এই কোভিড আবহে শুরু হয়েছে কলকাতা-লন্ডন উড়ান। সপ্তাহে দু'দিন করে আপাতত শুরু হয়েছে কলকাতা-লন্ডন উড়ান। বৃহস্পতিবার ও রবিবার কলকাতা থেকে হিথরোর উদ্দেশে রওনা দেবে বিমান। আর লন্ডন থেকে আসবে বুধবার ও শনিবার। আপাতত ভারতের সঙ্গে ব্রিটেনের 'এয়ার বাবল' চুক্তিতে অক্টোবর পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ভাবে এই উড়ান চালু হয়েছে। সব ঠিকঠাক চললে অক্টোবরের পরে নিয়মিত হওয়ার কথা এই উড়ান। না হলে ফের বন্ধও হতে পারে এই পরিষেবা। তবে প্রথম বারেই যে ভাবে হোঁচট খেল, তাতে শেষ পর্যন্ত এই উড়ান স্থায়ী হবে কি না, তা নিয়ে সন্দিহান ওয়াকিবহাল মহল।

বিমানবন্দরের এক কর্তা বলেন, ‘‘প্রাথমিক ভাবে এটি ছিল খুশির খবর। কিন্তু ব্যবসা না আনতে পারলে তা কিন্তু ব্যর্থ হবে। বিশেষত, একে এ রাজ্যে শিল্প ও ব্যবসার আদানপ্রদান তলানিতে। তার ওপর কোভিড আবহ। পড়ুয়ারাও এখন বিদেশে পড়তে যেতে সাহস পাচ্ছে না। এই অবস্থায় এই উড়ানকে লাভজনক করে তোলা প্রায় অসম্ভব এক চ্যালেঞ্জ। যদিও প্রথম উড়ানের যাত্রী সংখ্যা দেখে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া অনুচিত হবে। তা-ও সকাল দেখেই পুরো দিনের আবহাওয়া সম্পর্কে একটা ধারণা করা যায় বইকি।’’

Shalini Datta

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: September 17, 2020, 3:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर