corona virus btn
corona virus btn
Loading

হাতি, বাইসন অস্বাভাবিক মৃত্যু! রাজ্যের মুখ্য বনপালের রিপোর্ট তলব করল প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ   

হাতি, বাইসন অস্বাভাবিক মৃত্যু! রাজ্যের মুখ্য বনপালের রিপোর্ট তলব করল প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ   
ফাইল ছবি

কলকাতা হাইকোর্টের স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপে পশু, পাখি, সরীসৃপ, উভচর, ফ্লোরা, ফনা রক্ষা করতে রাজ্যের মুখ্য বনপালের রিপোর্ট তলব করা হল বৃহস্পতিবার।

  • Share this:

#কলকাতা: হাতি, বাইসন সহ বন্যপ্রাণী অস্বাভাবিক মৃত্যু আটকাতে কড়া মনোভাব দেখালো কলকাতা হাইকোর্ট। বন্যপ্রাণ বাঁচাতে উদ্বিগ্ন রাজ্যের প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণণ স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ করলেন।

কলকাতা হাইকোর্টের স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপে পশু, পাখি, সরীসৃপ,  উভচর, ফ্লোরা, ফনা রক্ষা করতে রাজ্যের মুখ্য বনপালের রিপোর্ট তলব করা হল বৃহস্পতিবার।  ২ সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট পেশের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। অন্তর্বতী নির্দেশে রাজ্যের বন্যপ্রাণ রক্ষায় মাষ্টার প্ল্যান জানতে চাওয়া হয়েছে। রাজ্যের বন্যপ্রাণী ম্যানেজমেন্টের বিশদ তথ্য তলব করা হয়েছে রিপোর্টে।

বক্সা, জলদাপাড়া, গরুমারা, বিন্নাগুড়ি জঙ্গল শুধু নয়। রাজ্যের সমস্ত জঙ্গলে কীভাবে ওয়াইল্ড লাইফ ম্যানেজমেন্ট পদ্ধতি মেনে চলা হয় তার বিশদ তথ্য তলব করা হয়েছে। ভিডিও কনফারেন্স শুনানিতে হাজির ছিলেন রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল এবং কেন্দ্রের অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল। মামলায় বিস্ময় প্রকাশ করে প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণণ বলেন, "অস্বাভাবিক হাতি মৃত্যুর ৬০% বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে! কীভাবে এমনটা সম্ভব?"

পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় অসীম গুরুত্ব বন্যপ্রাণ। কিছুদিন ধরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কিংবা ট্রেনে কাটা পরে অনেক হাতি, বাইসনের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘটনা ঘটছে। মূলত জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদয়ার জেলায় এমন ঘটনার সংখ্যা বেশি। বৃহস্পতিবার  প্রধান বিচারপতি রাধাকৃষ্ণণ এবং বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্ত ডিভিশন বেঞ্চ রিপোর্ট তলবের পাশাপাশি নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় পরিবেশ ও বন মন্ত্রক, রাজ্যের পরিবেশ ও বন দফতরের প্রধান সচিব, বিদ্যুৎ দফতরের প্রধান সচিব এবং আলিপুরদুয়ার ও জলপাইগুড়ি পুলিশ সুপারদের মামলায় অন্তর্ভুক্ত করতে। ২ সপ্তাহ পর ফের মামলার শুনানি।

ARNAB HAZRA

Published by: Shubhagata Dey
First published: September 3, 2020, 11:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर