ফের ভাটপাড়া-অস্বস্তি, হাইকোর্টে তৃণমূলের অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ

ফের ভাটপাড়া-অস্বস্তি, হাইকোর্টে তৃণমূলের অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ
কলকাতা হাইকোর্ট

অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। যার জেরে খারিজ হয়ে গেল অনাস্থা ভোটও।

  • Share this:

ARNAB HAZRA #কলকাতা: ফের তৃণমূলের ভাটপাড়া-অস্বস্তি। বৃহস্পতিবার সকালে অনাস্থা ভোটে, তৃণমূলের ভাটপাড়া পুনরুদ্ধারের দাবি, বিকেলে ধাক্কা খেল কলকাতা হাইকোর্টে। অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। যার জেরে খারিজ হয়ে গেল অনাস্থা ভোটও। একে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে শুক্রবার ডিভিশন বেঞ্চে যাচ্ছে তৃণমূল। সকাল ১০:৩০ বাজতেই ভাটপাড়া পুরোসভায় এক এক করে হাজির হয় তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলররা। ৪৫ মিনিটের মধ্যেই অনাস্থা বৈঠক। এবং বৈঠক শেষে ১৯-০ ব্যবধানে বিজেপির পরাজয়। ১৯ জন রুহুল কাউন্সিলর, বর্তমান বিজেপি চেয়ারম্যানকে অপসারণের পক্ষে ভোট দেন।

ভাটপাড়ায় তৃণমূল কংগ্রেস পুরসভা পুনরুদ্ধারের উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেছে, ঠিক সেই সময় বিজেপি কাউন্সিলর সোহন প্রসাদ চৌধুরী হাইকোর্টে গেলেন। মামলায় অনুমতি দিলেন বিচারপতি অরিন্দম সিনহা। দুপুর সাড়ে ১২টা, ২টো, বিকেল ৪টে। তিন দফায় শুনানি হয় ভাটপাড়া মামলার। শুনানি শেষে বিচারপতি যখন রায় ঘোষণা করলেন তখন বিকেল সাড়ে ৫টা। বিচারপতি অরিন্দম সিনহার পর্যবেক্ষণ, " ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান ২০ জানুয়ারি আইন মেনেই বিশেষ বৈঠক ডেকেছে। এই সময় ৩০ ডিসেম্বর তৃণমূল কংগ্রেসের তিন কাউন্সিলর যে নোটিশ দিয়ে বৈঠক ডেকেছে তা আইনি বিরুদ্ধ ।" এরপরই তৃণমূল কংগ্রেসের ৩ কাউন্সিলরের আনা নোটিস খারিজ করে দেয় এদিন হাইকোর্ট। বিজেপির আইনজীবী ধীরজ ত্রিবেদী কথায়, " হাইকোর্টের রায়ের পরে আজ সকালে ভাটপাড়া পুরসভায় যে বৈঠক হয়েছে তা বাতিল হল। বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তও বাতিল হল হাইকোর্টের নির্দেশে।" অর্থাৎ এক কথায় ভাটপাড়া পুরসভায় কোন বদলই হল না। যিনি বিজেপির চেয়ারম্যান ছিলেন তিনিই রয়ে গেলেন। আইন মোতাবেক ২০ জানুয়ারি চেয়ারম্যান যে বৈঠকের ডাক দিয়েছে , সেই বৈঠক পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেসকে অপেক্ষা করতে হবে ভাটপাড়ায় পালাবদলের জন্য। এরপর অ্যাডভোকেট জেনারেল সওয়াল করতে ওঠেন। তৃণমূলের কাউন্সিলরদের অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে তিনি যুক্তি পেশ করেন। পালটা আইনি জবাব দেন বিজেপির আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। তিনি দাবি করেন, ২০১৬ সালে একই রকম পরিস্থিতি তৈরি হয় পুরুলিয়ার ঝালদায়। তখন সেখানে কাউন্সিলরদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। পালটা সুপ্রিম কোর্টের একাধিক রায়কে সামনে রেখে সওয়াল করেন অ্যাডভোকেট জেনারেল। সব পক্ষের বক্তব্য শোনার পর, ভাটপাড়ায় অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দেন বিচারপতি।

First published: January 2, 2020, 8:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर