corona virus btn
corona virus btn
Loading

সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনেই শহরে যাত্রী কম, বাস বেশি

সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনেই শহরে যাত্রী কম, বাস বেশি
Representational Image

যদিও সকলের একটাই প্রশ্ন, এভাবে আর কতদিন। সরকারের অনুরোধ মেনে রাস্তায় বাস নামিয়েছে সব সংগঠন।

  • Share this:

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর ধমক। বিস্তর দড়ি টানাটানি বেসরকারি বাস নিয়ে। অবশেষে সেই সমস্ত সমস্যা মিটিয়ে আজ, সোমবার থেকে রাস্তায় নামল সমস্ত বাস সংগঠনের বাসই। পাল্লা দিয়ে রাস্তায় থাকল সরকারি বাস। যদিও অফিস টাইমের পর বাসে নেই যাত্রী। এই কারণে গোটা দিনে গড়ে সর্বাধিক ৩টি ট্রিপ করল বেসরকারি বাস। গত ২৭ মে থেকে রাস্তায় নেমেছিল বেসরকারি বাস।

পরবর্তী সময়ে রাজ্য সরকার আরও বেসরকারি বাস নামানোর কথা বলা হলেও বেশ কয়েকটি সংগঠন বাস নামায়। কোনও সংগঠন বাস নামায়নি। এর ফলে রাস্তায় বেরিয়ে ভোগান্তির শিকার হতে হয় যাত্রীদের। সমস্যা মেটাতে সরকার কলকাতা শহর ও শহরতলিতে বাসের সংখ্যা বৃদ্ধি করে। প্রায় ১৮০০ বাস রাস্তায় নামায় রাজ্য পরিবহন নিগম। সেই দিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করার চেষ্টা করা হয়। জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেট বাদে বাকি সংগঠন অবশ্য রাস্তায় বাস নামিয়েছিল। এদিন সকাল থেকে দেখা গেল বেঙ্গল বাস সিন্ডিকেট, জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেট, বাস-মিনিবাস সমন্বয় সমিতি, মিনিবাস অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন, মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন বাস নামিয়েছে।

আরও পড়ুন-বর্ধমান শহরে সংক্রমিত আরও ২ জন ! জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে

সব মিলিয়ে প্রায় ৪৭৭০ বেসরকারি বাস রাস্তায় নেমেছে। সরকারি বাস ধরে প্রায় ৬৫০০ বাস চলল রাস্তায়।  কিন্তু বাস যে সংখ্যায় রাস্তায় রয়েছে. তার তুলনায় যাত্রী সংখ্যা অনেকই কম। এদিন শহরের উত্তর থেকে দক্ষিণ সর্বত্র দেখা গেল বাস নিয়ে অভিযোগ নেই যাত্রীদের মধ্যে। কামালগাছি থেকে সেক্টর ফাইভে আসেন পৌলমী রায়। তিনি জানাচ্ছেন, "গত কয়েকদিন ধরে বাস পেতে নাজেহাল হয়েছিলাম। প্রায় দেড় ঘন্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছিল। আজ একেবারে ঠিক সময়ে বাস পেয়েছি।"

একই বক্তব্য ডানলপের শান্তনু দত্তের। তিনি জানাচ্ছেন, " দুটো রুটের সরকারি বাস ভরসা ছিল। আজ থেকে আর সেই অসুবিধা নেই। রাস্তায় যথেষ্ট সংখ্যক বেসরকারি বাস রয়েছে ফলে আজ যাতায়াতের অসুবিধা হচ্ছে না।" তবে রাস্তায় বাস নামিয়ে লাভ হচ্ছে না বলে জানাচ্ছে বিভিন্ন বাস সংগঠন। জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দোপাধ্যায়ের দাবি, "আমাদের সংগঠনের সদস্যরা আজ রাস্তায় বাস নামিয়েছে। বাস তো নামালাম কিন্তু লোক নেই তো। এভাবে যাত্রী ছাড়া বাস চালানো কতদিন সম্ভব হবে।" মিনিবাস সংগঠনের নেতা প্রদীপ নারায়ণ বোস জানান, "আমরা বাস বন্ধ করিনি। আজকেও চলছে বাস আমাদের। গত কয়েকদিনের চেয়ে বেশি চলছে। একই রুটে সরকারি ও বেসরকারি বাস চলছে। ফলে যাত্রী সংখ্যা ভাগ হয়ে যাচ্ছে। তাতে আরও ক্ষতি বাড়ছে। সরকার বলেছে আমরা চালাচ্ছি।"

যদিও সকলের একটাই প্রশ্ন, এভাবে আর কতদিন। সরকারের অনুরোধ মেনে রাস্তায় বাস নামিয়েছে সব সংগঠন। এবার তাদের দাবি, সরকার ভাড়া বাড়ানো নিয়ে দ্রুত একটা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুক।

আবীর ঘোষাল

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: July 6, 2020, 1:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर