Home /News /kolkata /
KMC || শহর জুড়ে মৃত্যুফাঁদ! অভিযান শুরু পুরসভার

KMC || শহর জুড়ে মৃত্যুফাঁদ! অভিযান শুরু পুরসভার

কলকাতা পুরসভা। ফাইল ছবি।

কলকাতা পুরসভা। ফাইল ছবি।

KMC || দোকানের সামনে গাছে বা কোন পোস্টে এলইডি লাইটের জড়ানো তার। আর তাতেই হাতছানি দিচ্ছে মৃত্যুফাঁদ।

  • Share this:

শহর জুড়ে আলোর সৌন্দর্যায়ন। তবে সেই সৌন্দর্যায়নে নিয়ম নাস্তি। কোথাও হোটেল রেস্তোঁরা বা কোথাও অন্য দোকান। দোকানের সামনে গাছে বা কোন পোস্টে এলইডি লাইটের জড়ানো তার। আর তাতেই হাতছানি দিচ্ছে মৃত্যুফাঁদ।  অভিযান শুরু কলকাতা পুরসভার আলো বিভাগের। কাউন্সিলরদের সক্রিয় ভূমিকা নিতে অনুরোধ পুরসভার মেয়র পরিষদ (আলো) সন্দীপরঞ্জন বক্সীর।

আরও পড়ুন: সহপাঠীর মৃত্যুতে ভেস্তে গেল সব প্ল্যান! কান্নায় নীতিশকে বিদায় দিল গোটা স্কুল

 শহরের বিভিন্ন হোটেল রেস্তোরাঁর সামনে গাছে গাছে আলোর মালা পরিয়ে রাখা হয়। কোথাও এলইডি আলো জড়িয়ে বা  এলইডি টিউব ছড়িয়ে দেওয়া হয় গাছে।‌ বৃষ্টি হলে যে কোনো মুহূর্তে মৃত্যুর কারণ হতে পারে এই ধরনের আলোর সঙ্গে থাকা ধাতব বস্তু। গাছের সঙ্গে থাকা এলইডি তার শর্ট সার্কিট এর কারণ হতে পারে। বিভিন্ন পোস্টে এই ধরনের জড়ানো আলো তৈরি করতে পারে  মৃত্যুফাঁদ। সেখান থেকে যে কোনও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই সেগুলি  খুলে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মেয়র ফিরহাদ হাকিম বিপজ্জনক যে কোনো ধরনের আলো খুলে ফেলতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। সন্দীপরঞ্জন বক্সী সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কলকাতা পুরসভার সমস্ত কাউন্সিলরদের অনুরোধ করা হয়েছে, অবৈধভাবে গাছ লাগানো থাকলে খুলে ফেলার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে।

ইতিমধ্যেই বেশ কিছু এলাকায় গাছ থেকে খুলে ফেলা হয়েছে আলোর মালা। এদিন চৌরঙ্গী রোড, এলগিন রোড, উডবার্ন রোড, অ্যালেন বাই রোড ও হসপিটাল রোডে নিজের ওয়ার্ডে এমনই কয়েকটি গাছ থেকে লাইটের মালা খোলার ব্যবস্থা করেন স্থানীয় কাউন্সিলর অসীম বসু। কলকাতা পুরসভার আলো বিভাগের কর্মীদের সহযোগিতায় নিজে দাঁড়িয়ে থেকে আলো খোলেন কাউন্সিলর। কলকাতা পুরসভার ১১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অনিতা কর মজুমদার শীল আলো নিয়ে সচেতনতা প্রচার করেন ওয়ার্ড জুড়ে। বাঁশদ্রোণী এলাকায় অটোতে মাইক লাগিয়ে প্রচার করা হয়।

৭০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অসীম বসু জানান, সচেতনতা প্রচারের জন্য প্রথমে বলা হয়েছিল। নিজেরা অনেকেই খুলে নিয়েছেন আলো। যারা খোলেননি তাঁদের হয়ে আমরা নিজেরাই খুলে দিলাম পুরসভার পক্ষ থেকে। এরপরেও যদি কেউ এই ধরনের বিপজ্জনক আলো লাগান তাহলে পুরসভার আইন অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Published by:Rachana Majumder
First published:

Tags: KMC

পরবর্তী খবর