Home /News /kolkata /
Kolkata News: কেএমসি ঝুঁকেগা নেহি, ফ্লাওয়ার নয় ফায়ার, কলকাতা পুরসভায় 'পুষ্পা' ম্যাজিক!

Kolkata News: কেএমসি ঝুঁকেগা নেহি, ফ্লাওয়ার নয় ফায়ার, কলকাতা পুরসভায় 'পুষ্পা' ম্যাজিক!

পুরসভায় 'পুষ্পা'

পুরসভায় 'পুষ্পা'

Kolkata News: কলকাতা পুরসভায় গত বুধবার ২০২২- ২০২৩ সালের জন্য বাজেট পেশ করেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এই বাজেটে ১৭৭ কোটি টাকার ঘাটতি দেখানো হয়।

  • Share this:

#কলকাতা: কেএমসি ঝুঁকেগা নেহি।  তৃণমূল কংগ্রেস মানে জোড়াফুল। ফ্লাওয়ার নয় ফায়ার। কলকাতা পুরসভার বাজেট বক্তৃতায় এভাবেই উঠে এল জনপ্রিয় দক্ষিণী সিনেমা পুষ্পার ফেভারিট ডায়লগ। এখানেই শেষ নয়, প্রাক্তন সিনেমার সেই জনপ্রিয় সুর.... 'তুমিও হেঁটে দেখো কলকাতা!', এই আদলেই কলকাতায় হেরিটেজ ওয়াক ট্যুর করার প্রস্তাব দিলেন তৃণমূল কাউন্সিলর।

কলকাতা পুরসভায় গত বুধবার ২০২২- ২০২৩ সালের জন্য বাজেট পেশ করেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এই বাজেটে ১৭৭ কোটি টাকার ঘাটতি দেখানো হয়। একইসঙ্গে অবশ্য ডিজিটাল কলকাতায় জোর দেওয়া হয়েছে। সম্পত্তি করের সরলীকরণ ছাড়াও সবুজায়ন ও পরিবেশ দূষণ প্রতিরোধে উদ্যোগের জন্যও নানান কথা বলা হয়েছে।

নাগরিক পরিষেবা আগামী আর্থিক বছরে কেমন হবে? কেমন হবে কলকাতা পৌরসভার আয়ের এর উৎস? এই সব নিয়েই মেয়র ফিরহাদ হাকিমের পেশ করা বাজেটের উপর দুদিনের আলোচনার শুক্রবার ছিল প্রথম দিন। সেই প্রথম দিনের আলোচনায় শাসক ও বিরোধী দলের নানা চাপানউতোর তো ছিলই, ভ্যাকসিন থেকে শুরু করে লকডাউনের নাগরিক অসুবিধার কথাও উঠে আসে বাজেট আলোচনায়। তবে সব কিছুকে ছাপিয়ে গেছে এদিনের বাজেট অধিবেশনের ফিল্মি বক্তব্য।

সেরা বক্তব্যটি অবশ্যই রেখেছেন ১০৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অনন্যা বন্দোপাধ্যায়। ইংরেজি ও বাংলায় একেবারে ঝরঝরে বক্তৃতার শেষ লগ্নে  জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবির মারকাটারি ডায়লগ দেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে পুষ্পা ছবির ডায়লগ এখন মুখে মুখে। তৃণমূল কংগ্রেসের জোড়া ফুল প্রতীক আসলে ফ্লাওয়ার নয় ফায়ার। এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে অনন্যা মনে করিয়ে দেন, আমফান থেকে করোনার সমস্যা, যেভাবে কলকাতা পুরসভার টিম কাজ করেছে.... তাতে কেএমসি ঝুঁকতা নেহি। স্বভাবতই অনন্যার ডায়লগ শুনে হাততালিতে মুখরিত হয়ে ওঠে কলকাতা পুরসভার কাউন্সিল চেম্বার।

আরও পড়ুন: টাকা নয়, স্ত্রীকে খুন করতে সুপারি কিলারকে যা অফার করল স্বামী! আঁতকে উঠবেন...

প্রাক্তন ছবিতে সেই গানটা নিশ্চয়ই মনে আছে, 'কলকাতা.... তুমিও হেঁটে দেখো কলকাতা। তুমিও ভেবে দেখো কলকাতা', জনপ্রিয় বাংলা ছবিতে যেভাবে নায়ক প্রসেনজিৎ ওয়াক-ট্যুর করেছিলেন কলকাতায়, বাস্তবে সেরকমই ওয়াক-ট্যুর করার প্রস্তাব দেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইলোরা সাহা।

তাঁর প্রস্তাবে পর্যটনের নতুন দিগন্ত খুলে যাবে বলে মনে করেন অনেকেই। তিনি বলছিলেন, ''যেমন ধরুন মল্লিক ঘাট ফুল বাজার থেকে যদি হাঁটা শুরু করা যায় একেবারে পোস্তা রাজবাড়ী হয়ে উত্তর কলকাতার অলিগলি হয়ে পৌঁছে যাবে সিমলা বিবেকানন্দের বাড়ি, কুমোরটুলি থেকে বাগবাজার মায়ের বাড়ি কত কিছু রয়েছে উত্তর কলকাতায় এই বিশেষ পর্যটনের মধ্যে। এই পর্যটন থেকে আয় কলকাতা পুরসভার বাজেট ঘাটতির সুরাহা করতে পারে বলে মনে করেন ইলোরা।

আরও পড়ুন: অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপানো হচ্ছে! ফুঁসে উঠলেন দিলীপ ঘোষ! নিশানায় কিন্তু 'বড়' মুখ

ইলোরার এই প্রস্তাব একেবারে উড়িয়ে দেননি মেয়র ফিরহাদ হাকিম। যদিও তিনি বলেন, পর্যটনে রাজ্যের একটি বিশেষ দফতর রয়েছে। এটা পুরসভার বিষয় নয়। তবে এর জন্য পরিকাঠামোগত উন্নয়ন পুরসভা করতেই পারে। শুধু উত্তর কলকাতা নয়, গোটা শহরজুড়ে রয়েছে নানান হেরিটেজ। সেই হেরিটেজ স্থাপত্য রক্ষা করাই কলকাতা পুরসভার কাছে কড়া চ্যালেঞ্জ। সেই সূত্রেই মেয়র চরম বার্তা দেন হেরিটেজ ভবনের মালিকদের। সময়মতো সংস্কার না করলে পুরসভা নিজে উদ্যোগেই সংস্কার করে সেই বাড়ির সম্পত্তি করের সঙ্গে জুড়ে দেবে সংস্কারের খরচ। না দিতে পারলে সেই হেরিটেজ সম্পত্তি আইন অনুসারে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে কলকাতা পুরসভা। এ ক্ষেত্রেও তিনি ভূকৈলাশ মন্দিরের উদাহরণ টেনে বলেন, ''যদি কর্পোরেট সংস্থারা সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি থেকে এগিয়ে আসেন তাহলে কলকাতার হেরিটেজ বাঁচতে পারে আগামী দিনের জন্য।''

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Firhad Hakim, KMC

পরবর্তী খবর