‘অবিলম্বে অনশন প্রত্যাহার করুন’, অনশনরত পড়ুয়াদের কাছে আবেদন কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর

‘অবিলম্বে অনশন প্রত্যাহার করুন’, অনশনরত পড়ুয়াদের কাছে আবেদন কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর

File Photo

কলাবিভাগে প্রবেশিকা ফেরানোর দাবিতে এখনও অনশন বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা । যার জেরে ব্যাপকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠন পাঠন ব্যাহত হচ্ছে ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: কলাবিভাগে প্রবেশিকা ফেরানোর দাবিতে এখনও অনশন বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা । যার জেরে ব্যাপকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠন পাঠন ব্যাহত হচ্ছে ৷ এমনকী, অনশনরত পড়ুয়াদের শারিরীক অবস্থারও দ্রুত অবনতি হচ্ছে ৷ সেই নিয়েই উদ্বেগ প্রকাশ করে অনশন অবিলম্বে তুলে নেওয়ার আবেদন জানালেন আচার্য কেশরীনাথ ত্রিপাঠি ৷

    পড়ুয়াদেরকে চিঠি লিখে অনশন প্রত্যাহার করার আবেদন করলেন আচার্য ৷ চিঠিতে কেশরীনাথ ত্রিপাঠী লেখেন, ‘‘অবিলম্বে অনশন প্রত্যাহার করুন ৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান বজায় রাখুন ৷’’

    অন্যদিকে, আজ অনশনরত অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েন ছাত্রী সোমাশ্রী চৌধুরী ৷ যাদবপুরের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন তিনি ৷ এই প্রসঙ্গে চিঠিতেই অনশনরতদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ৷

    আরও পড়ুন: নিম্নমানের খাবার পরিবেশন করে কাঠগড়ায় যশবন্তপুর-হাওড়া দুরন্ত এক্সপ্রেস

    একইসঙ্গে ত্রিপাঠাী পড়ুয়াদের উদ্দেশে চিঠিতে জানান, প্রবেশিকা নিয়ে সর্বশেষ সিদ্ধান্ত নেবেন উপাচার্যই ৷ অন্যদিকে, প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়ে নিয়মমতো উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে পদক্ষেপ নেওয়ার পরামর্শ দিলেন কেশরীনাথ ৷

    এদিকে আজ সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ে পা দিয়েই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়লেন যাদবপুরের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস ৷ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ অনশনরত পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছন সুরঞ্জনবাবু ৷ সেখানে গিয়ে পড়ুয়াদের সামনে ভেঙে পড়েন উপাচার্য ৷ বলেন, ‘‘সমস্যা মেটাতে আমি ব্যর্থ হয়েছি ৷ সে কথা আচার্যকেও জানিয়েছি ৷ আমি চলে গেলে তোমরা আরও ভাল উপাচার্য পাবে ৷’’ এরপর কিছুটা স্বগতোক্তির গলায় তিনি বলেন, ‘‘আমার চেয়ার থেকে যতটুকু পেরেছি করেছি ৷ আচার্য পরামর্শ দিলেই ইসি করব ৷’’

    First published: