রাজভবনে রাজ্যপালের আতিথেয়তায় মুগ্ধ কাশ্মীরি পড়ুয়ারা

রাজভবনে রাজ্যপালের আতিথেয়তায় মুগ্ধ কাশ্মীরি পড়ুয়ারা

কলকাতার অনেক নামী জায়গা তাদের জানা হলেও দেখার সুযোগ হয়নি। এবার সেই ইচ্ছাপূরন হল সিআইএসএফের হাত ধরে।

  • Share this:

#কলকাতা: ওরা রোজই থাকে এক অন্য এক পরিবেশে। সকাল থেকে অশান্তি নিত্যসঙ্গী ওদের।  কলকাতা ওদের কাছে না জানা হলেও ঘুরে দেখার সময় নেই। ওরা খোঁজে শান্তি,  শান্ত পরিবেশ, একটু স্বস্তি।  কলকাতার অনেক নামী জায়গা তাদের জানা হলেও দেখার সুযোগ হয়নি। এবার সেই ইচ্ছাপূরন হল সিআইএসএফের হাত ধরে।

কলকাতার ইকো পার্ক, ভিক্টোরিয়া আগেই দেখেছে, সোমবার কাশ্মীরের পড়ুয়ারা ঘুরে দেখল রাজভবন। সোমবার সকালে এসে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করল কাশ্মীরের পড়ুয়ারা৷  নিজেদের বিভিন্ন কথা জানালেন ৪৮ জন কাশ্মীরি ছাত্র। সকাল থেকেই তাদের মধ্যে উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মত। এদিন ছাত্রদের পছন্দের খাবার থেকে প্রিয় খেলোয়াড় সবই আড্ডার ছলে জেনে নিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

এত শান্ত ও সুন্দর তিলোত্তমাকে দেখে অনেকটাই মুগ্ধ ওরা। রাজ্যপাল বিভিন্ন কথার মাঝেই তাদের জানালেন সবার সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজনীতা। জানালেন এখন পাঁচজন থাকলে সবাই নিজের মোবাইলের প্রতি নজর দেন, তার থেকে সবার সঙ্গে কথা বলার গুরুত্ব অনেক বেশি। ভ্রমণ সব থেকে বড় শিক্ষা সেই কথাও জানিয়ে ভ্রমণের উপকারিতা ব্যাখ্যা করলেন রাজ্যপাল। জগদীপ ধনখড়ের পরামর্শ নিজের বাড়িতে ফিরে গিয়ে রাজভবন ভ্রমণের অভিজ্ঞতা লিখুক এই পড়ুয়ারা।  যাতে সারা বছর এই স্মৃতি মনে থাকে পড়ুয়াদের। বর্তমানে সব কিছুতেই এসেছে ডিজিটালের ছোঁয়া,  পড়ুয়াদের কাছে রাজ্য়পাল জানতে চাইলেন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের প্রসঙ্গ। এই ভারতবর্ষে যা আছে তা বিদেশেও নেই এই কথা বলে তাদের ভ্রমণের প্রতি আগ্রহী করার চেষ্টা করলেন জগদীপ ধনখড়।  এই ধরনের অনুষ্ঠান রাজ্য সরকারেরও করা দরকার বলে জানান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

Susovan Bhattacharjee

First published: January 20, 2020, 5:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर