'এনকাউন্টার করে অপরাধ থামানো যায় না ' হায়দরাবাদের ঘটনার নিন্দা তথাগত রায়ের গলায়

'এনকাউন্টার করে অপরাধ থামানো যায় না ' হায়দরাবাদের ঘটনার নিন্দা তথাগত রায়ের গলায়

'' মাওবাদীদের মতো ক্যাঙ্গারু কোর্ট বা এনকাউন্টার করে অপরাধ বা অপরাধী কাউকেই আটকানো যায় না "

  • Share this:

ARUP DUTTA

#কলকাতা: হায়দরাবাদে পুলিশি এনকাউটারের নিন্দা করলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথা রাজ্য বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথাগত রায়। আজ, শনিবার কলকাতায় তথাগত বলেন, "অপরাধমূলক কাণ্ডে অভিযুক্তকে এভাবে পুলিশ গুলি করে মারবে এটা সমর্থনযোগ্য নয়। দু একটি বিশেষ ঘটনায় তাকে মেনে নিতে হলেও, হায়দরাবাদে যা ঘটেছে আমি তার নিন্দা করছি। মাওবাদীদের মতো ক্যাঙ্গারু কোর্ট বা এনকাউন্টার করে অপরাধ বা অপরাধী কাউকেই আটকানো যায় না। "

এদিকে, রাজ্যে হায়দরাবাদের ঘটনায় রাজনৈতিক ও বুদ্ধিজীবী মহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে। প্রাক্তন সাংসদ ও বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার মতে, পুলিশ যদি ভুল করে থাকে তাহলে মানুষ ঠিক করবে। গনতন্ত্রে মানুষই শেষ কথা। তবে, তার দলেরই একাংশ অনুপমের সঙ্গে একমত নন। অপর্ণা সেনের মতো বুদ্ধিজীবীদের সমালোচনার মুখে পড়েন অনুপম। তাঁর কৌশলী উত্তর," কে বলল পুলিশ অভিযুক্তদের এনকাউন্টার করে মেরেছে। পালিয়ে যাচ্ছিল বলেই পুলিশকে নিরুপায় হয়ে গুলি চালাতে হয়েছে।"

রাজনৈতিক নেতা ও বুদ্ধিজীবীদের অনেকেই মনে করছেন, চিত্রনাট্য যেভাবে সাজানো হয়েছে তাতে স্পষ্ট যে ঘটনার পুননির্মাণ করতে গিয়েই বিপত্তি। আসলে তা নয়। কারন, ৩০ নভেম্বর একবার অপরাধীদের নিয়ে পুননির্মাণ করার পর ফের দ্বিতীয়বার কেন যেতে হল পুলিশকে? কেনই বা এ ধরনের জঘন্য অপরাধীদের কথা মাথায় রেখে পর্যাপ্ত পুলিশী ব্যবস্থা রাখা হল না ? পুননির্মাণের আগে পুলিশ কি আদালত থেকে প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়েছিল? উঠছে এরকম একাধীক প্রশ্ন। আর তা নিয়েই পুলিশের দাবি নিয়ে সংশয় বাড়ছে মানুষের মনে। শুধু এই প্রশ্নই নয়, অনেকেই মনে করছেন এতে বিচার ব্যবস্থার ওপর আস্থা হারাবে মানুষ। অপরাধ ও অপরাধীদের বিচারে আদালতের শিথীলতা নিয়ে মানুষের ক্ষোভ সঙ্গত হলেও, আইনের বিচারকে কখনও উপেক্ষা করতে বলা যায় না। কারন, দীর্ঘমেয়াদি বিচারে সেটা মানুষ, বিচার ব্যবস্থা, দেশের গণতান্ত্রিক কাঠামো রক্ষায় বিপজ্জনক হতে পারে, এটা তারই অশনি সংকেত।

First published: 10:42:33 PM Dec 07, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर