Home /News /kolkata /
Kalyanmoy Ganguly: নিয়োগ দুর্নীতি বিচারাধীন বিষয়, তদন্ত শেষ হোক, কলুষমুক্ত হবে পর্ষদ: কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়

Kalyanmoy Ganguly: নিয়োগ দুর্নীতি বিচারাধীন বিষয়, তদন্ত শেষ হোক, কলুষমুক্ত হবে পর্ষদ: কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়

দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর দায়িত্ব পালন করে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়।

  • Share this:

    #কলকাতা: মধ্যশিক্ষা পর্ষদের দায়িত্ব নিয়ে প্রথমবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায়। প্রাক্তন সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে আসেন নবনিযুক্ত সভাপতি। তিনি বলেন, "মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি হিসেবে আমায় দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ন্যূনতম ৪ শতাংশ জনসংখ্যা, ছাত্রছাত্রী এবং তাদের পরিবারের লোকজন, আমাদের কাজের উপর নজর রাখেন। কিন্তু প্রচুর গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করতে হয় বছরভর। আইনানুগ ভাবে অধ্যাপক কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের বয়স উত্তীর্ণ হওয়ায় উনি আর এই দায়িত্ব নিতে পারছেন না। আজ থেকে স্কুল খুলেছে, অনেক কাজ রয়েছে। বোর্ড তার কাজ করবে। দীর্ঘ ১০ বছর কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় ছিলেন। গত দেড় দিন আমি যতটা জেনেছি, প্রথমবার বোর্ডের পরীক্ষা দেওয়ার মতোই উত্তেজনা হচ্ছে। এই গোটা কর্মকাণ্ডে যারা যারা জড়িত, সবাইকে আমি কুর্নিশ জানাই। মুখ্যমন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীকে ধন্যবাদ এই দায়িত্ব দেওয়ার জন্য।"

    আরও পড়ুন Mukul Roy: স্পিকারের কাছে পাঠালেন ইস্তফাপত্র, হঠাৎ শোরগোল ফেলে দিলেন মুকুল রায়!

    দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর দায়িত্ব পালন করে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিয়েছেন কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। তিনিও বলেন, " মধ্যশিক্ষা পর্ষদে ২০১২ তে যোগদান করেছিলাম। আমার ৬৯ বছর পেরিয়ে গিয়েছে। নিয়মেই চলে যেতে হচ্ছে আমায়। আমি যখন এসেছিলাম তখন মাধ্যমিকে ৯ লক্ষ পরীক্ষার্থী ছিল, এখন প্রায় ২ লক্ষ বেড়ে ১১ লক্ষ হয়েছে। এখন কোনো রেজাল্ট অসম্পূর্ণ থাকে না।"

    আরও পড়ুন: রাতে এল ফোন, সকালেই দিল্লি পৌঁছানোর নির্দেশ! সুকান্তকে নিয়ে বিজেপিতে শোরগোল

    তবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কৃতিত্বের পাশাপাশি বিতর্কিত বিষয় নিয়ে কিছু অপ্রিয় প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় প্রাক্তন সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়কে। ইতিমধ্যেই নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে জড়িয়েছে তাঁর নাম। তবে এই সম্পর্কে প্রশ্নের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, গোটা বিষয়টি বিচারাধীন রয়েছে। তদন্ত প্রক্রিয়াও চলছে।এই বিষয়ে কোনও বক্তব্য রাখতে চান না তিনি। সবাইকে তদন্ত প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে বলে তাঁর দাবি তদন্ত শেষ হলেই উত্তর পাওয়া যাবে সব প্রশ্নের। তখনই কলুষমুক্ত হবে পর্ষদ। তবে শুধুমাত্র সাইনিং অথরিটি হওয়া সত্বেও যেভাবে তাঁর নাম জড়িয়েছে সেই বিষয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে কিছুটা মেজাজ হারান প্রাক্তন পর্ষদ সভাপতি। নবনিযুক্ত সভাপতি রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায়ের দাবি, "আমি দেড় দিন দায়িত্ব নিয়েছি। আমরা তো সেলিব্রিটি নই, আমরা শিক্ষক। আমাদের এই পাবলিক ট্রায়াল নিয়ে সমস্যা। আইনের উপর আস্থা রয়েছে।"

    Sanhyik Ghosh
    Published by:Pooja Basu
    First published:

    পরবর্তী খবর