Home /News /kolkata /
গ্রেফতার কালিকাপ্রসাদের গাড়ির চালক !

গ্রেফতার কালিকাপ্রসাদের গাড়ির চালক !

দক্ষিণ কলকাতা থেকে গ্রেফতার কালিকাপ্রসাদের গাড়ির চালক ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: অবশেষে গ্রেফতার প্রয়াত সঙ্গীত-শিল্পী কালিকাপ্রসাদের গাড়ির চালক ৷ দক্ষিণ কলকাতা থেকে তাকে গ্রেফতার করে হুগলি জেলার পুলিশ ৷ ধৃত চালকের বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷ চালকের গাফিলতিতেই যে কালিকাপ্রসাদের মৃত্যু, এব্যাপারে এখন প্রায় নিশ্চিত পুলিশ ৷

    এর আগে অবশ্য শিল্পী কালিপ্রসাদ ভট্টাচার্যের গাড়ির চালক পুলিশের কাছে দাবি করেছিলেন, ট্রেলার ধাক্কা মারাতেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ের পাশে নয়ানজুলিতে গিয়ে পড়েছিল তাদের ইনোভা গাড়িটি। কিন্তু চালক এমন দাবি করলেও, তদন্তে নেমে পুলিশ একরকম নিশ্চিত, যে অন্য কোনও গাড়ির ধাক্কা নয়, বরং চালক ঘুমিয়ে পড়াতেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে পড়ে যায় গাড়িটি। সংবাদমাধ্যমে দুর্ঘটনাগ্রস্ত গাড়িটির চালক অর্ণব রায় দাবি করেন, তাদের গাড়িকে ওভারটেক করার সময়ে একটি ট্রেলারের পিছনের অংশ ইনোভা গাড়িতে ধাক্কা মারে। যার ফলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে পড়ে যায় গাড়িটি। গাড়ির গতি সেই সময়ে ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার ছিল বলে জানায় চালক। গাড়ির সামনের আসনেই দুর্ঘটনার সময় বসেছিলেন কালিকাপ্রসাদ। দুর্ঘটনায় শিল্পীর মৃত্যু হলেও সেভাবে আহত হননি গাড়ির চালক। দুর্ঘটনার পরে অনেকক্ষণ কালিকাপ্রসাদের বুকে পাম্প করেছিলেন তাঁকে বাঁচানোর জন্য বলে অবশ্য দাবি চালকের।

    গ্রেফতার গাড়ির চালক অর্ণব রায় ৷ গ্রেফতার গাড়ির চালক অর্ণব রায় ৷

    ড্রাইভারের এই দাবি অবশ্য মানতে নারাজ পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ এবং ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা, দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ের উপরে ঘণ্টায় প্রায় ১০০ কিলোমিটার গতিবেগে ছুটছিল ইনোভা গাড়িটি। কিন্তু সেই সময়ে চালক অর্ণব রায়ের চোখ লেগে আসে। আর তিনি ঘুমিয়ে পড়ার কারণেই নিয়ন্ত্রণ হারায় গাড়িটি। ক্রমশ বাঁ-দিকে সরতে সরতে রাস্তার ধারে অ্যালুমিনিয়ামের রেলিংয়ে ঘষা খেতে থাকে গাড়িটি। এর পরে কালভার্টে ধাক্কা মেরে গাড়ির সামনের একটি চাকা খুলে যায়। তখনই গাড়িটি উল্টে রেলিং টপকে প্রায় ১০ থেকে ১৫ ফুট নীচের নয়ানজুলিতে পড়ে যায়। ষাটের নীচে গাড়ির গতি থাকলে অ্যাঙ্গেলে ধাক্কা মেরে গার্ড রেলের উপর উঠে সেখানে আটকে যাওয়ার কথা গাড়ি ৷ গাড়ির গতি ৫৫ হলে প্রায় ৭০ মিটার গার্ডরেলের উপর দিয়ে গিয়ে কালভার্টের কংক্রিটে গিয়ে ধাক্কা মারত না গাড়ি ৷ লরির ধাক্কার পর রাস্তার ধার বরাবর গাড়ি সোজা না গিয়ে মাঠে নামিয়ে দেওয়াটা স্বাভাবিক ৷

    চালকের বক্তব্যের সঙ্গে মিলছে না ফরেন্সিক পরীক্ষায় পাওয়া তথ্যও।পিছন থেকে লরি গাড়ির ডানদিকে ধাক্কা মারলে তার চিহ্ন পাওয়া যেত ৷ বন্ধ ছিল গাড়ির এয়ার ব্যাগ ৷ গাড়ির ব্রেকও ব্যবহার করা হয়নি ৷

    First published:

    Tags: Arrest, Kalikaprasad, Kalikaprasad Death, Kalikaprsad Driver

    পরবর্তী খবর