• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • JUSTIC KAUSHIK CHANDA TO GIVE VERDICT ON TRANSFER OF NANDIGRAM CASE TO ANY OTHER COURT DMG

Nandigram Case: নন্দীগ্রাম মামলা কি অন্য বেঞ্চে সরবে? বুধবার রায় দেবেন বিচারপতি কৌশিক চন্দ

বিচারপতি কৌশিক চন্দের এজলাস থেকে কি সরবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দায়ের করা মামলা?

নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে (Nandigram) শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari) কাছে পরাজিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)৷ ভোটের সেই ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন মুখ্যমন্ত্রী৷

  • Share this:

#কলকাতা: নন্দীগ্রামের ভোটের ফলকে চ্যালেঞ্জ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দায়ের করা ইলেশন পিটিশনের শুনানি কি বিচারপতি কৌশিক চন্দের এজলাস থেকে সরানো হবে?  বুধবার বিচারপতি চন্দ নিজেই সেই রায় দেবেন৷ বিচারপতি কৌশিক চন্দ বিজেপি ঘনিষ্ঠ, এই যুক্তি দেখিয়ে তাঁকে স্বেচ্ছায় এই মামলা থেকে সরে দাঁড়ানোর আর্জি জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি৷

বিচারপতি কৌশিক চন্দের উপরে কেন তাঁরা আস্থা রাখতে পারছেন না, গত ২৪ জুন প্রায় এক ঘণ্টা সওয়াল করে তা ব্যাখ্যা করেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি৷ সেই শুনানিতে ভার্চুয়াল মাধ্যমে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও৷ ওই দিন আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রায় দান স্থগিত রেখেছিলেন বিচারপতি কৌশিক চন্দ৷

নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ভোটের সেই ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সেই মামলা যায় বিচারপতি কৌশিক চন্দের এজলাসে৷ কিন্তু বিচারপতি চন্দ আইনজীবী হিসেবে বিজেপি-র হয়ে একাধিক মামলায় লড়েছেন এবং বিজেপি-র একটি অনুষ্ঠানেও তাঁকে দেখা গিয়েছে, এই যুক্তিতে মামলাটি অন্য কোনও বিচারপতির এজলাসে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে আবেদন জানানো হয়৷ বিচারপতি চন্দের এজলাসে এই মামলার শুনানি হলে তা কতটা নিরপেক্ষ হবে, সেই সংশয় প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রীর আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি৷ বুধবার সেই আবেদনেরই রায় দেবেন বিচারপতি কৌশিক চন্দ৷

গত ২৪ জুন আবেদনের পক্ষে সওয়াল করতে গিয়ে অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি আর্জি জানান, বিচারপতি চন্দের নিজেরই এই মামলা থেকে সরে দাঁড়ানো উচিত৷ যদিও বিচারপতি চন্দ অভিষেক মনু সিঙ্ঘভির কাছে জানতে চান, মামনার নিরপেক্ষতা নিয়ে সন্দেহ থাকলে কেন তা আরও আগে জানানো হয়নি৷ তিনি আরও প্রশ্ন করেন, 'শুনানি সম্পূর্ণ হওয়ার আগেই কেন আপনাদের মনে হচ্ছে যে সুবিচার পাবেন না? এটা কোন ধরনের শিষ্টাচার?' বুধবার বিচারপতি চন্দ শেষ পর্যন্ত কী রায় দেন, আপাতত সেদিকেই নজর আইনজীবী এবং রাজনৈতিক মহলের৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: