• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসা: জেটলি

সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসা: জেটলি

জনতার বিপুল সমর্থনে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরে জনগণের মঞ্চে জনসাধারণকে তাঁর খুশিতে সামিল করার কথা ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই কথা মতোই রেডরোডে জনগণের মঞ্চে জনগণকে সাক্ষী রেখে ইশ্বর ও আল্লার নামে দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে সেজে উঠেছিল রেড রোড ৷ মমতার শপথ মঞ্চে থাকবেন ছিলেন দেশ-বিদেশের একঝাঁক অতিথি। উপস্থিত ছিলেন অখিলেশ যাদব, নীতীশ কুমার, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, লালুপ্রসাদ যাদব, অরুণ জেটলি ও অশোক গজপতি রাজু ৷

জনতার বিপুল সমর্থনে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরে জনগণের মঞ্চে জনসাধারণকে তাঁর খুশিতে সামিল করার কথা ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই কথা মতোই রেডরোডে জনগণের মঞ্চে জনগণকে সাক্ষী রেখে ইশ্বর ও আল্লার নামে দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে সেজে উঠেছিল রেড রোড ৷ মমতার শপথ মঞ্চে থাকবেন ছিলেন দেশ-বিদেশের একঝাঁক অতিথি। উপস্থিত ছিলেন অখিলেশ যাদব, নীতীশ কুমার, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, লালুপ্রসাদ যাদব, অরুণ জেটলি ও অশোক গজপতি রাজু ৷

জনতার বিপুল সমর্থনে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরে জনগণের মঞ্চে জনসাধারণকে তাঁর খুশিতে সামিল করার কথা ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই কথা মতোই রেডরোডে জনগণের মঞ্চে জনগণকে সাক্ষী রেখে ইশ্বর ও আল্লার নামে দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে সেজে উঠেছিল রেড রোড ৷ মমতার শপথ মঞ্চে থাকবেন ছিলেন দেশ-বিদেশের একঝাঁক অতিথি। উপস্থিত ছিলেন অখিলেশ যাদব, নীতীশ কুমার, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, লালুপ্রসাদ যাদব, অরুণ জেটলি ও অশোক গজপতি রাজু ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: জনতার বিপুল সমর্থনে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরে জনগণের মঞ্চে জনসাধারণকে তাঁর খুশিতে সামিল করার কথা ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই কথা মতোই রেডরোডে জনগণের মঞ্চে জনগণকে সাক্ষী রেখে ইশ্বর ও আল্লার নামে দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে সেজে উঠেছিল রেড রোড ৷ মমতার শপথ মঞ্চে ছিলেন দেশ-বিদেশের একঝাঁক অতিথি। উপস্থিত ছিলেন অখিলেশ যাদব, নীতীশ কুমার, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, লালুপ্রসাদ যাদব, অরুণ জেটলি ও অশোক গজপতি রাজু ৷

    ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলে শাসক দলের হাতে বিজেপি নেতা কর্মীরা আক্রান্ত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে বারবার ৷ কিন্তু রাজ্য বিজেপি মুখ ফেরালেও মমতার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতারা ৷ ভোটের পর তৃণমূল নেত্রীর প্রতি কেন্দ্রীয় বিজেপি সুব নরম করায় জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে বিভিন্ন মহলে ৷

    এদিন শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের পর সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানান, ‘কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে মমতাজিকে অভিনন্দন জানাতে এসেছিলাম ৷ সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসা ৷’

    এবছরের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ফলাফল নিয়ে জেটলি বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে বরাবরই বিজেপি ছোট দল ৷ কিন্তু রাজ্যজুড়ে আমাদের ভোট রয়েছে ৷ এবারে পশ্চিমবঙ্গে আমাদের ভোট বেড়েছে ৷ আমরা আমাদের সাংগঠনিক শক্তি বাড়িয়েছি ৷’

    ভোট পরবর্তী হিংসার প্রতিবাদে ফল প্রকাশের পর থেকেই সরব রাজ্য বিজেপি ৷ এমনকি দলের নেতা-কর্মীদের উপর আক্রমণের প্রতিবাদে মমতার শপথ অনুষ্ঠান বয়কট করার কথা বলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ ৷ এদিন এই প্রসঙ্গ উঠতেই জেটলি বলেন,‘ পশ্চিমবঙ্গে হিংসা বন্ধ হবে ৷ শাসকদলের সমর্থকদের থামতে বলবে সরকার ৷ আমরা তার জন্য অপেক্ষা করব ৷ রাজ্যের শান্তি ও প্রগতির জন্য এটা দরকার ৷ হিংসা বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে ৷ নতুন সরকারের কাছে এটাই আমাদের আশা ৷’

    ভোটের পর তৃণমূল নেত্রীর প্রতি কেন্দ্রীয় বিজেপি সুব নরম করায় জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে বিভিন্ন মহলে ৷ বৃহত্তর জোট গড়ার লক্ষ্যে মমতার সঙ্গে সন্ধির পথে এগোতে চাইছে কী  বিজেপি ? প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে ৷

    First published: