Jagdeep Dhankhar : ফের দিল্লি সফরে জগদীপ ধনখড়! ট্যুইট বার্তায় গীতার বাণী, ‘কাজ করে যাও, ফলের আশা কোরো না’

ফের দিল্লি সফরে রাজ্যপাল Photo : File Photo

শনিবার সকাল ১০.৪৬-এর বিমানে দিল্লিতে রওনা দেন জগদীপ ধনখড়(Jagdeep Dhankhar)। এর আগে যতবার তিনি দিল্লি গিয়েছেন, ট্যুইট করে তার ‘উদ্দেশ্য’ জানিয়েছেন সামাজিক মাধ্যমে অত্যন্ত সক্রিয় রাজ্যপাল (Governor Jagdeep Dhankhar)।

  • Share this:

    কলকাতা: আবারও দিল্লি গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)। শনিবার সকালের বিমানে রাজধানী উড়ে যান তিনি। রাজ্যপালের (Governor) হঠাৎ ফের এই দিল্লি সফর ঘিরে ইতিমধ্যেই নানা জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। গত মাসেও দিল্লি গিয়েছিলেন ধনখড়। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে সাক্ষাৎও করেন। সূত্রের খবর দিল্লি থেকে জরুরিভিত্তিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে জগদীপ ধনখড়কে(Jagdeep Dhankhar)। এক মাসের মধ্যে হঠাৎ কেন তাঁকে দিল্লি ডেকে পাঠানো হল, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে জোর জল্পনা।

    শনিবার সকাল ১০.৪৬-এর বিমানে দিল্লিতে রওনা দেন জগদীপ ধনখড়(Jagdeep Dhankhar)। এর আগে যতবার তিনি দিল্লি গিয়েছেন, ট্যুইট করে তার ‘উদ্দেশ্য’ জানিয়েছেন সামাজিক মাধ্যমে অত্যন্ত সক্রিয় রাজ্যপাল (Governor Jagdeep Dhankhar)। গত মাসেও দিল্লি যাওয়ার আগে বিস্তারিত লেখেন ট্যুইটারে। উল্লেখযোগ্য ভাবে, এদিনের দিল্লি সফর সংক্রান্ত কোনও উল্লেখই কিন্তু চোখে পড়েনি ধনখড়ের সামাজিক মাধ্যমের পাতায়।

    কলকাতা ছাড়ার আগে গীতার বাণী দিয়েই একটি ট্যুইট পোস্ট করেছেন রাজ্যপাল। ভগবত গীতার অমোঘ সেই বাণী ‘কর্মন্যবাধিকারস্তে মা ফলেষু কদাচন’, এদিন ধনখড়ের ট্যুইটে দেখা গিয়েছে। তিনি শ্লোকটি উল্লেখ করে নিজেই তর্জমা করে লিখেছেন, ‘কাজ করে যাও, ফলের আশা কোরো না।’ গীতার এই শব্দবন্ধের আড়ালে কী বার্তা প্রচ্ছন্ন তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে তড়িঘড়ি রাজ্যপালের এ ভাবে দিল্লি যাওয়া রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতিতে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা।

    উল্লেখযোগ্য ভাবে, গত কয়েকদিনে রাজ্যপালের ট্যুইটে সে ভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার কিংবা পুলিশ প্রশাসনকে নিয়ে কোনও সমালোচনাও চোখে পড়েনি। সম্প্রতি হাওলাকাণ্ডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরব হওয়ার ঘটনা, বিধানসভায় বিজেপি বিধায়কদের হট্টগোলে মাঝ পথেই ভাষণ শেষ করে রাজ্যপালের অধিবেশন কক্ষ ছাড়া, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের বিস্ফোরক রিপোর্ট, মুকুল রায়ের পিএসি চেয়ারম্যান পদ নিয়ে জটিলতা একাধিক বিষয়ে বাংলার রাজনীতি যখন ফুটছে, তখন কিছুটা নীরবই থাকছেন রাজ্যপাল। এরই মধ্যে শনিবার তাঁর দিল্লি যাওয়া কীসের বার্তা দিচ্ছে তা জানতে সম্ভবত অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছু সময়।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: