• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • শ্লীলতাহানির অভিযোগের পর রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ যাদবপুরের ছাত্র

শ্লীলতাহানির অভিযোগের পর রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ যাদবপুরের ছাত্র

  • Share this:

    #কলকাতা: হস্টেল থেকে বেরিয়ে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ যাদবপুরের এক ছাত্র ৷ নিখোঁজ ছাত্রের নাম সুশীল মান্ডি ৷ সুশীলের বন্ধুরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সকালে হস্টেল থেকে বেরিয়ে যায় সুশীল তারপর থেকে তার আর কোনও খোঁজ নেই ৷ অভিযোগ, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাতত্ত্ব বিভাগের পড়ুয়া সুশীল মান্ডির বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনে ফেসবুকে একটি পোস্ট করা হয় ৷ ওই পোস্টের পরই মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে সুশীল ৷ সেই কারণেই সে নিখোঁজ দাবি ছাত্রের পরিবারের ৷

    ক্যাম্পাসে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, পড়ুয়া নিখোঁজ সবমিলিয়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ৷ উপাচার্য সুরঞ্জন দাস এবং রেজিস্ট্রার প্রদীপকুমার ঘোষকেও ছাত্রের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি জানানো হয়েছে ৷ ২৪ ঘণ্টা পরও সুশীলের খোঁজ না মেলায় যাদবপুর থানায় মিসিং ডায়রি করেন পড়ুয়ার পরিবার ৷

    সেখানেই উল্লেখ করা হয়, কলেজের একটি রাজনৈতিক দল ফেসবুকে সুশীলের নামে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনে একটি পোস্ট করে ৷ ওই পোস্টটি দেখার পর থেকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল সুশীল ৷ সেখান থেকেই এমন পদক্ষেপ বলে অভিযোগ সুশীলের দাদার ৷

    IMG-20170204-WA0013

    ক্যাম্পাস সূত্রে খবর, গত সপ্তাহে একটি সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম স্টাডিজের এক ছাত্রী এম ফিল পড়ুয়া সুশীল মাণ্ডির বিরুদ্ধে অশালীন ব্যবহার ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনেন ৷ ঘটনার সময় উপস্থিত অধিকাংশ পড়ুয়ার দাবি, ছাত্রীর অভিযোগ সত্য নয় ৷ পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র সংগঠন USDF তরফ থেকে সুশীল মান্ডির নাম করে একটি পোস্ট করা হয় ৷ যাতে সুশীলকে শ্লীলতাহানির মতো জঘন্য কাজে অভিযুক্ত বলা হয় ৷ এই পোস্টটি দেখার পর থেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল সুশীল ৷

    শ্লীলতাহানির অভিযোগ ফেসবুকে করা হলেও থানায় বা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি ‘নির্যাতিতা’ ছাত্রী বা USDF ছাত্র সংগঠন ৷ ওই ছাত্রী ও USDF-এর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে পড়ুয়ার পরিবার ৷ উল্লেখ্য, নকশালপন্থী ছাত্র সংগঠন র‌্যাডিকালের নেতা সুশীল মান্ডি দলিত ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ৷
    First published: