Safe home: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার সেফ হোম! রাজ্যের অনুমোদনের অপেক্ষায় কর্তৃপক্ষ

করোনা মোকাবিলায় এর আগেও একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।এবার সেফ হোম তৈরির পথে চলেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

করোনা মোকাবিলায় এর আগেও একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।এবার সেফ হোম তৈরির পথে চলেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা (corona) মোকাবিলায় এর আগেও একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় (Jadavpur University)।এবার সেফ হোম তৈরির পথে চলেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেলে ৬ হাজার বর্গফুট জুড়ে এই সেফ হোম তৈরীর পরিকল্পনা নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের কাছে তার প্রস্তাব আকারে পাঠিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। প্রস্তাবে সায় দিয়ে কলকাতা পুরসভার আধিকারিকরা ইতিমধ্যেই ওই জায়গা পরিদর্শন করে দিয়েছে বলেই বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর।

এ প্রসঙ্গে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য সুরঞ্জন দাস জানিয়েছেন, "বিভিন্ন জায়গা থেকে দাবি আসার পরে আমাদের তরফে রাজ্য সরকারের কাছে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অংশে সেফ হোম করা যায়। আমরা সেটা রাজ্য সরকারের কাছে প্রস্তাব আকারে পাঠিয়েছি। তবে আমরা জানিয়েছি সেফহোম হলেও তার জন্য যাবতীয় পরিচালনার দায়িত্ব রাজ্য সরকারকে নিতে হবে। ভলেন্টিয়ার এর দরকার পড়লে আমাদের তরফে ২৪ ঘণ্টা ছাত্র-ছাত্রীদের দিয়ে দেওয়া হবে।"

করোনা পরিস্থিতির কারণে বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে বন্ধ রয়েছে। সেকারণে বিশ্ববিদ্যালয় হস্টেল বন্ধ। বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক-অধ্যাপিকাদের একাংশের তরফের দাবি উঠেছিল করোনা মোকাবিলায় বিশ্ববিদ্যালয়কে যাতে কোনওভাবে ব্যবহার করা যায়। সেই দাবি মেনেই হোস্টেলের একাংশে সেফহোম করার নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয় মেন হোস্টেলে ব্লক সি এবং ব্লক ডির একাংশে এই সেফ হোম করার প্রস্তুতি নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এই হস্টেলের ৬ হাজার স্কোয়ার ফিট জুড়ে একাধিক বেডের সেফহোম করা সম্ভব বলে মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ও একাধিক উদ্যোগ নিতে চলেছে করোনা মোকাবিলায়। ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ গোয়েনকা হসপিটালকে কোভিড কেয়ার সেন্টার হিসেবে গড়ার সম্মতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। স্বাস্থ্য দফতরে আবেদনে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বৃহস্পতিবারই।

আগামী সপ্তাহ থেকেই গোয়েনকা কলেজে কোভিড কেয়ার সেন্টারের যাবতীয় প্রস্তুতি শুরু হয়ে যাবে বলেই বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর। এবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় করোনা মোকাবিলায় এই ধরনের উদ্যোগ নিতে শুরু করল। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর আগামী সপ্তাহের মধ্যেই রাজ্যের তরফে প্রস্তাব অনুমোদন হয়ে আসতে পারে। তারপরেই ক্যাম্পাসের এই হস্টেলে সেফহোম পুরোপুরিভাবেই শুরু হয়ে যাবে। তবে উপাচার্য সুরঞ্জন দাস জানিয়েছেন " রাজ্য সরকারের তরফে পুরোপুরিভাবে ব্যবস্থা করতে হবে যদিও আমাদের তরফ এ ২৪ ঘন্টা ব্যাপী ভলেন্টিয়ার দেওয়া সম্ভব।"

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: