মুকুল-দিলীপকে বড় 'পুরস্কার' দিতে পারে বিজেপি! ভাবনার নেপথ্যে বিশেষ ইঙ্গিত?

মুকুল-দিলীপকে বড় 'পুরস্কার' দিতে পারে বিজেপি! ভাবনার নেপথ্যে বিশেষ ইঙ্গিত?

দুজনেই কি প্রার্থী

সোমবার গভীর রাত পর্যন্ত বৈঠকের পর ফের মঙ্গলবার রাতেই রাজ্য বিজেপি নেতাদের দিল্লিতে তলব করেছেন অমিত শাহরা।

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হয়েছে মাত্র চার দফার। কিন্তু তারপর থেকেই শুরু হয়েছে দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভ। আর সেই আঁচ এসে পড়েছে কলকাতায় বিজেপির প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে। সোমবারের পর মঙ্গলবারও সারাদিন ধরে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বিজেপি কর্মীদের বিক্ষোভ বিড়ম্বনায় ফেলেছে দলীয় নেতৃত্বকে। এই পরিস্থিতিতে সোমবার গভীর রাত পর্যন্ত বৈঠকের পর ফের মঙ্গলবার রাতেই রাজ্য বিজেপি নেতাদের দিল্লিতে তলব করেছেন অমিত শাহরা। এরই মধ্যে গুঞ্জন শুরু হয়েছে, দিলীপ ঘোষ বা মুকুল রায়কেও ভোটের ময়দানে নামাতে পারে বিজেপি। ইতিমধ্যেই চার সাংসদকে বিধানসভা ভোটের প্রার্থী করে চমক ও বিরোধীদের কটাক্ষ-দুইই জুটেছে বিজেপির। এরই মাঝে দিলীপ, মুকুলদের প্রার্থী করে সেই ক্ষোভে প্রলেপ দেওয়ার চেষ্টা করতে পারে বিজেপি।

    ক্ষমতা এখনও দূরে। মুখে ২০০ আসন পাওয়ার কথা বললেও আপাতত ম্যাজিক ফিগার পাওয়ার দিকেই লক্ষ্য রাখছেন বিজেপি নেতারা। সেক্ষেত্রে যশ, পায়েল, তনুশ্রীর মতো তারকাদের যেমন টিকিট দিচ্ছে বিজেপি, তেমনি চেষ্টা চলছে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য এমন নেতাদের প্রার্থীপদ দেওয়া। প্রবল ক্ষোভের আবহে তাই দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়দের মতো গ্রহণযোগ্য মুখকে ভোট ময়দানে নামাতে চাইছে বিজেপি।

    প্রসঙ্গত, দিলীপকে অনেক আগে থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মুখ করার জল্পনা ভাসছিল। তাঁর অনুগামীদের অনেকেই বিষয়টি নিয়ে জোরাল প্রচারও সারছিল। সেক্ষেত্রে নিজের সংসদীয় এলাকা তথা নিজের পুরনো বিধানসভা কেন্দ্র খড়গপুর সদর থেকেই দিলীপকে প্রার্থী করা হতে পারে জল্পনা ছিলই। কিন্তু তৃতীয়-চতুর্থ দফার প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পরই স্পষ্ট হয়ে যায়, খড়গপুর সদর থেকে দিলীপ নয়, বরং সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসা অভিনেতা হিরণকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। যা নিয়ে দিলীপ অনুগামীরা বেজায় ক্ষুব্ধ বলেও সূত্রের খবর।

    কিন্তু এবার পরিবর্তীত পরিস্থিতিতে খড়গপুর সদর না হোক, বীরভূমের দুবরাজপুর থেকে প্রার্থী করা হতে পারেন দিলীপ ঘোষকে। প্রসঙ্গত, গত লোকসভা নির্বাচনে দুবরাজপুর কেন্দ্রে ১৪,০০০ ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি। সেক্ষেত্রে দিলীপ ঘোষের মতো হেভিওয়েট প্রার্থীর জন্য কেন্দ্রটি নিরাপদ হতে পারে বলে ধারনা রাজ্য বিজেপির অনেকের ধারনা। অপরদিকে, সংগঠনে 'তুখোড়' হলেও ভোটে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে মুকুল রায়ের তেমন সাফল্য কোনওকালেই নেই। কিন্তু এবার মুকুলকে কৃষ্ণনগর দক্ষিণ থেকে প্রার্থী করে দিতে পারে বিজেপি। লোকসভা কেন্দ্রে এই কেন্দ্র থেকে বিজেপি ৬,০০০-এর কিছু বেশি ভোটে এগিয়ে ছিল। তবে, মুকুল কতটা ভোটে লড়ার জন্য প্রস্তুত হবেন, তা নিয়ে সন্দিহান অনেকেই। কারণ ২০০১ সালের পর আর ভোটে লড়েননি তিনি।

    Published by:Suman Biswas
    First published: