corona virus btn
corona virus btn
Loading

লক ডাউন শেষে কোথাও যেতে চান? আজই বুক করুন আপনার ট্রেনের টিকিট  

লক ডাউন শেষে কোথাও যেতে চান? আজই বুক করুন আপনার ট্রেনের টিকিট   

আইআরসিটিসি'র ওয়েবসাইট বা অ্যাপ মারফত ট্রেনের টিকিট কাটা যাচ্ছে।

  • Share this:

#কলকাতাঃ  লক ডাউনের জেরে গোটা দেশে আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ যাত্রীবাহী ট্রেন চলচল। কিন্তু ১৫ এপ্রিলের জন্যে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটা শুরু হয়েছে। আইআরসিটিসি'র ওয়েবসাইট বা অ্যাপ মারফত  ট্রেনের টিকিট কাটা যাচ্ছে। আইআরসিটিসি-সূত্রে খবর, টিকিট কাটা গেলেও চাহিদা নেই। তবে কেন্দ্রীয় সরকার যদি ফের লক ডাউনের দিন বৃদ্ধি করে তাহলে ট্রেনের টিকিটের মূল্য ফেরত পেয়ে যাবেন যাত্রীরা।

করোনা সংক্রমণের জেরে সংস্পর্শ এড়াতে লক ডাউনের সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় সরকার। পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয় ট্রেন চলাচল। অনেকেই আশা করছেন ১৫ এপ্রিল থেকে যাতায়াত করা যাবে। সেই কারণেই ই-টিকিটের দিকে ঝুঁকছেন অনেকেই। যেমন হিমাচল প্রদেশ বেড়াতে যেতে চান গৌরব। পয়লা বৈশাখের আগেই যেতে চেয়েছিলেন। লক ডাউনের জন্য যেতে পারলেন না। যদি ১৫ তারিখ থেকে লকডাউন আর নতুন করে না হয় তাহলে বেড়াতে যাবেন তিনি। গৌরব জানান, "আমি যাওয়ার জন্য প্রস্তুত। তাই ই-টিকিট কেটে রেখেছি। যদি না যেতে পারি তাতেও সমস্যা নেই। কারণ টিকিট কাটার পুরো টাকা তো রিফান্ড পেয়ে যাব।" আইআরসিটিসি'র এক আধিকারিক জানান, "টিকিট কাটার অপশন আছে। কিন্তু টিকিট কাটার লোকের সংখ্যা অনেক কম।" উদাহরণ হিসাবে তিনি জানাচ্ছেন দার্জিলিং মেল বা পদাতিকে প্রতি এক মিনিটে অন্তত ৩টি টিকিট বুকিং হয়ে যায়। কিন্তু ৩০ মিনিটেও একটি টিকিট বুকিং হচ্ছেনা। তবে টিকিটের টাকা যেহেতু ফেরত পাওয়া যাবে তাই অনেকটাই নিশ্চিন্ত হয়ে টিকিট কাটায় সাহস পেয়েছেন।

যদিও রেলের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই ব্যবস্থা চালুই ছিল। কারণ ১২০ দিন আগে থেকেই টিকিট বুকিং করা যায়। তবে মানুষের মধ্যে থেকে ভয় সরানো যাচ্ছে না। অন্যদিকে, রেল পরিষেবা বন্ধ থাকায় সমস্যায় পড়েছেন কুলিরা। এবার থেকে তাদের খাওয়ানোর ব্যবস্থা করে দিল রেল। আইআরসিটিসি-র উদ্যোগে স্টেশনের কুলিদের দিন রাত দু'বেলা খাওয়ানো হবে। এছাড়া তাদের সাহায্য করতে চাল, ডাল, আটা দেওয়া হয়েছে। হাওড়া স্টেশনে ৬৫ জন কুলি ও ৫০ জন সাফাইকর্মীদের এই সব জিনিষ দিয়ে সাহায্য করা হয়।

ABIR GHOSAL 

Published by: Shubhagata Dey
First published: April 2, 2020, 8:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर