• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বিল না মেটানোর সাজা, সুস্থ রোগীকে আটকে রাখল হাসপাতাল, হাইকোর্টের নির্দেশে মুক্তি

বিল না মেটানোর সাজা, সুস্থ রোগীকে আটকে রাখল হাসপাতাল, হাইকোর্টের নির্দেশে মুক্তি

File Photo

File Photo

বিল না মেটানোর সাজা, সুস্থ রোগীকে আটকে রাখল হাসপাতাল, হাইকোর্টের নির্দেশে মুক্তি

  • Share this:

    #কলকাতা: পুরো বিল না মেটানোয় বেসরকারি হাসপাতালে সুস্থ হওয়ার পরও বন্দী রোগী। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেতে শেষমেষ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে হল। আদালতের নির্দেশেই শেষে মুক্তি পেলেন বন্দনা বাগচী। বিলের জন্য এভাবে সুস্থ মানুষকে হাসপাতালে আটকে রাখা যাবে না। সতর্কবার্তা কলকাতা হাইকোর্টের।

    কলম্বিয়া হাসপাতালের ৭০৩ নম্বর রুম। এই ঘরেই গত ৫০ দিন ধরে বন্দী করে রাখা হয়েছিল বন্দনা বাগচীকে। হাইকোর্টের নির্দেশে বৃহস্পতিবার মুক্তি পেলেন বন্দনাদেবী। পরিবারের আবেদনের ভিত্তিতে নজিরবিহীন নির্দেশ বিচারপতি জয়মাল্য বাগচীর।

    বিচারপতির নির্দেশ,

    দুপুর ১ টার মধ্যে রোগীকে ছাড়তে হবে হাসপাতাল থেকে। বেলা ২টোর মধ্যে হাইকোর্টে হাজির হয়ে রিপোর্ট দিতে হবে পুলিশকে। সুস্থ রোগীকে আটকে রাখতে পারে না হাসপাতাল। টাকা আদায়ের জন্য আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারে।

    নামী হাসপাতাল। তবুও জল, ওষুধ সহ কোনও পরিষেবাই দেওয়া হয়নি রোগীকে। ২৬ ডিসেম্বর হাসপাতাল থেকে ডিসচার্জ করা হয় বন্দনাদেবী। তারপরই দ্রুত মোড় নেয় ঘটনা।

    ৫ লক্ষ টাকা বিল করে হাসপাতাল পরিবার ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকার বেশি মেটাতে পারেনি বাকি টাকা কিস্তিতে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি লিখিত প্রতিশ্রুতিও প্রস্তাব দেওয়া হয় তাতে রাজি না হওয়ায় রোগীকে ছাড়েনি হাসপাতাল ঘরে আটকে রেখে সব পরিষেবা বন্ধ করার অভিযোগ

    ৭২ বছরের এই মহিলা শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ভরতি হয়েছিলেন কলম্বিয়া এশিয়ায়। লক্ষ লক্ষ টাকার বিল এমনকি চিকিৎসার নথি নিয়েও বিস্ফোরক অভিযোগ পরিবারের।

    পুলিশ থেকে স্বাস্থ্য কমিশনে অভিযোগ জানিয়েও কাজ হয়নি। শেষপর্যন্ত হাইকোর্টের রায়ে মুক্তি পেলেন সত্তরোর্ধ্ব বন্দনাদেবী। ঘটনায় আরও একবার সামনে এল বেসরকারি হাসপাতালের তুঘলকি কান্ড।

    First published: