৪৫ আসন চায় আইএসএফ, বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে চূড়ান্ত হল না আসন রফা

৪৫ আসন চায় আইএসএফ, বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে চূড়ান্ত হল না আসন রফা
আজ শুক্রবার ফের বাম, কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসবে আইএসএফ নেতৃত্ব৷

আজ শুক্রবার ফের বাম, কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসবে আইএসএফ নেতৃত্ব৷

  • Share this:

#কলকাতা: আব্বাস সিদ্দিক্কির দল ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ)-এর সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে চূড়ান্ত রফা হল না বাম-কংগ্রেস জোটের৷ সূত্রের খবর, বামেদের সঙ্গে আসন রফা মোটামুটি হয়ে গেলেও কংগ্রেসের সঙ্গে আসন ভাগভাগি নিয়ে এখনও জটিলতা রয়ে গিয়েছে৷

বৃহস্পতিবারই আসন রফা নিয়ে বাম এবং কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিল আইএসএফ৷ সূত্রের খবর, দুই দলের থেকে মোট ৪৫টি আসন দাবি করেছিল আইএসএফ নেতৃত্ব৷ এর মধ্যে বামেদের থেকে তিরিশিটি এবং কংগ্রেসের কাছে চাওয়া হয়েছে ১৫টি আসন৷ আইএসএফ যে আসনগুলি চেয়েছে, তার অধিকাংশই ছাড়তে রাজি বাম নেতৃত্ব৷ শুধু দু'টি আসন নিয়ে কিছুটা জটিলতা রয়েছে৷ সেগুলি হল কালচিনি এবং বহরমপুর৷ বাম শরিক হিসেবে ওই দুই আসন পাওয়ার কথা ছিল ফরওয়ার্ড ব্লকের৷ ওই দুই আসন ছাড়া নিয়ে ফরওয়ার্ড ব্লকের কিছুটা আপত্তি রয়েছে৷ তবে আলোচনার পর তারা আসন দু'টি আইএসএফ-কে ছাড়তে রাজি হবে বলেই আশাবাদী বাম নেতারা৷


তবে কংগ্রেসের ক্ষেত্রে রফাসূত্র বেরনো বেশ কিছুটা জটিল৷ কারণ কংগ্রেসের থেকে আইএসএফ যে আসনগুলি চেয়েছে, তার মধ্যে এমন কিছু বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে যেখানে ২০১৬ সালে কংগ্রেস জিতেছিল৷ সেই আসনগুলি আইএসএফ-কে ছাড়তে নারাজ কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের আসন ছাড়ার ক্ষেত্রেও অনীহা রয়েছে কংগ্রেসের৷

আইএসএফ-এর সঙ্গে জোট করতে বেশি তৎপর ছিল প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্বই৷ আইএসএফ-এর সঙ্গে জোটের পক্ষে সওয়াল করে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধিকে চিঠিও লিখেছিলেন আব্দুল মান্নান৷ এখন আইএসএফ-এপ আসন রফায় বসে কংগ্রেসই কিছু বিপাকে৷

তবে আজ শুক্রবারও ফের বাম, কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসবে আইএসএফ নেতৃত্ব৷ ইতিমধ্যেই অবশ্য আসন ভাগাভাগি নিয়ে প্রায় চূড়ান্ত সমঝোতায় পৌঁছে গিয়েছে বাম এবং কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ যদিও কারা কতগুলি আসনে লড়বে, সে বিষয়ে প্রকাশ্যে কিছু জানানো হয়নি৷

Ujjal Roy

Published by:Debamoy Ghosh
First published: