কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

"স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্রভর্তি দুর্নীতিমুক্ত করতে হবে", দাবি নিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভে SFI

সোমবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করেছে।M.Com এর অ্যাডমিশন এর ক্ষেত্রে অ্যাপ্লিকেশন ফি নিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় এমনটাই অভিযোগ আনা হয়েছে এসএফআই নেতৃত্বে তরফে।

  • Share this:

#কলকাতা: সোমবার থেকেই শুরু হয়েছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া। এদিন থেকেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইনে স্নাতকোত্তর স্তরের আবেদন পত্র দেওয়া ও জমা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করছে।

তবে আবেদন পত্র দেওয়া ও জমা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হলেও কি উপায়ে স্নাতকোত্তর স্তরে ছাত্র ভর্তি হবে সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে এখনও পর্যন্ত বিস্তারিত নির্দেশিকা দেওয়া হয়নি । যদিও চলতি সপ্তাহেই এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত জানাতে পারে বিশ্ববিদ্যালয় বলেই জানা গিয়েছে। সে ক্ষেত্রে সরকারের ঘোষণা মোতাবেক ৮০-২০ এই ফর্মুলাতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্নাতকোত্তর স্তরে ছাত্র ভর্তি করতে চলেছে। অর্থাৎ ৮০% পড়ুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে থেকে। বাকি ২০ শতাংশ পড়ুয়া অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নেওয়া হবে।

এসএফআইয়ের অভিযোগ, সোমবার বিকেল থেকে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হলেও কী উপায়ে ছাত্রছাত্রীরা ভর্তি হবেন সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় নিশ্চিত করে জানায়নি। শুধু তাই নয় অ্যাপ্লিকেশন ফি না নেওয়ার কথা বলা হলেও M.Com এর অ্যাডমিশন এর ক্ষেত্রে অ্যাপ্লিকেশন ফি নিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় এমনটাই অভিযোগ আনা হয়েছে এসএফআই নেতৃত্বে তরফে। সোমবার দুর্নীতিমুক্ত ছাত্র ভর্তির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজস্ট্রিট ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ দেখায় এসএফআইয়ের নেতৃত্ব।

সোমবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করেছে। পুজোর মধ্যেই স্নাতক স্তরের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ফলাফল প্রকাশ করে দিয়েছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। স্নাতকোত্তর স্তরে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি জারি করলেও ভর্তি পরীক্ষার ব্যাপারে চূড়ান্ত ভাবে জানায়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সূত্রের খবর, ২০ শতাংশ পড়ুয়া অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভর্তির জন্য যে নেওয়া হবে সেক্ষেত্রে এই ২০ শতাংশ পড়ুয়া নেওয়ার ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকা পরীক্ষা নিতে পারে। বাকি ৮০ % পড়ুয়াদের ভর্তির ক্ষেত্রে নম্বরের মাধ্যমে ভর্তি করে নেওয়া হতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। যদিও এই বিষয়ে সোমবারও একপ্রস্থ বিশ্ববিদ্যালয় আধিকারিকরা বৈঠক করেছে বলেই বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর।

অন্যদিকে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরুর দিনেই এসএফআইয়ের কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজস্ট্রিট ক্যাম্পাসে বিক্ষোভের জেরে ক্যাম্পাসজুড়ে উত্তেজনা ছড়ায়। এসএফআইয়ের কলকাতা জেলার সভাপতি অর্জুন রায়ের অভিযোগ " গত কয়েক বছরের অভিজ্ঞতা দেখে আমরা দেখেছি তৃণমূল ছাত্র পরিষদ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ভর্তিতে দুর্নীতি করছে। তাই আমরা দুর্নীতিমুক্ত ছাত্র ভর্তির দাবি নিয়ে আজ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছি। আমরা দাবি রেখেছি অনলাইনে মেধাতালিকা প্রকাশ করতে হবে।" এদিকে এবছর স্নাতক স্তরে চূড়ান্ত বর্ষের ফলাফল এর ক্ষেত্রে দেখা যায় বিএ এবং বিএসসিতে ফার্স্ট ক্লাসের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে গতবারের তুলনায় বেড়েছে।ফলতো এত সংখ্যক ফার্স্ট ক্লাস প্রাপক পড়ুয়াদের বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর স্তরের জায়গা করে দেওয়া সম্ভব নাকি সেই নিয়ে উদ্বিগ্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকের একাংশ। যদিও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ বেশ কয়েকটি কলেজে স্নাতকোত্তর স্তরের পড়ানো হয়। সে ক্ষেত্রে সমস্যার মোকাবিলা করা সম্ভব বলে মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Elina Datta
First published: November 2, 2020, 4:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर