• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • দু’বেলা ফোন, শরীরের খোঁজ নেওয়া...কোভিড পরিস্থিতিতে "নিরাময়" আনল কলকাতা পুলিশ

দু’বেলা ফোন, শরীরের খোঁজ নেওয়া...কোভিড পরিস্থিতিতে "নিরাময়" আনল কলকাতা পুলিশ

  • Share this:

Susovan Bhattacharjee

#কলকাতা: তাঁরাও ফ্রন্ট লাইন ওয়ারিয়র। রাস্তায় নেমে তাঁরাও কাজ করছেন। তাঁদের একাধিক জন ইতিমধ্যেই আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে একাধিক জনের। এ বার সেই পেশার মানুষদের জন্যে নিয়ে আসা হল নয়া অ্যাপ। কলকাতা পুলিশের "নিরাময়"। যার মাধ্যমে প্রত্যেক পুলিশকর্মীর স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখা যাবে। কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা উদ্বোধন করলেন এই ডিজিটাল সিম্পটম চেকারের। ‘‘নিরাময়’’ আসলে অভয় দেবে ফ্রন্ট লাইন ওয়ারিয়রদের।

কলকাতা পুলিশের একাধিক জন করোনা আক্রান্ত। মারা গিয়েছেন আট জন। আক্রান্ত হয়েছেন আইপিএস অফিসাররা পর্যন্ত। বাদ যায়নি ট্রাফিক থেকে সিভিক পুলিশও। ওসি থেকে সাব ইন্সপেক্টর। তাই এই কঠিন পরিস্থিতিতে ডিজিটালি নজর দিতে চাইছে কলকাতা পুলিশ। কীভাবে কাজ করবে "নিরাময়"? এই কাজের জন্যে থাকছে আলাদা করে একটা টেলি ডেস্ক। প্রত্যেক থানার মাধ্যমে লালবাজারে অবস্থিত সেই টেলি ডেস্ক খোঁজ রাখবে সকলের। কেমন করে খোঁজ রাখবে তাঁরা? কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, ফোন করা হবে পুলিশ কর্মীদের।

দিনে দু'বেলা ফোন করা হবে তাঁদের। যাঁরা ছুটি নিয়েছেন তাঁদের কাছেও ফোন যাবে। শারীরিক অসুস্থতার উন্নতি কতটা হল, কী কী উপসর্গ দেখা যাচ্ছে তার দু'বেলাই চলবে খবর নেওয়া। প্রয়োজনে চিকিৎসক সহ চিকিৎসা পদ্ধতিতে সাহায্য বা উপায় বাতলানো হবে এই টেলি ডেস্ক থেকে যা আদপে একটি ডিজিটাল মাধ্যম। সহজ কথায় বলতে গেলে একটি পোর্টাল। বিভাগীয় আধিকারিকদের বলা হয়েছে, এই বিষয়ে খুঁটিনাটি সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করতে। প্রয়োজনে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে।

কলকাতা পুলিশের এই উদ্যোগে খুশি পুলিশকর্মীরা। তবে অনেকেরই বক্তব্য, করোনা পরিস্থিতিতে কাজ করতে গিয়ে কিছুটা হলেও ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন নীচু তলার পুলিশকর্মীদের একাংশের। "নিরাময়" আসলে শরীর ও মন এই দুই থেকেই বেরিয়ে আসার ডিজিটাল ওষুধ হতে চলেছে। এ দিন পুলিশ কমিশনার এই ব্যবস্থা চালু করেন। হাজির ছিলেন কলকাতা পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা।

Published by:Simli Raha
First published: