যেই বারণ করুক, আমি গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করব, মন্তব্য বরকতির– News18 Bengali

যেই বারণ করুক, আমি গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করব, মন্তব্য বরকতির

যেই বারণ করুক, আমি গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করব, মন্তব্য বরকতির

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:May 10, 2017 04:53 PM IST
যেই বারণ করুক, আমি গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করব, মন্তব্য বরকতির
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:May 10, 2017 04:53 PM IST

#কলকাতা: ভিআইপি সংস্কৃতি ঘোচাতে গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে মোদি সরকার ৷ পয়লা মে থেকে গোটা দেশে কার্যকর হয়েছে এই সিদ্ধান্ত ৷ দেশের বাকি মন্ত্রী-সান্ত্রীদের গাড়ির মাথা থেকে স্থানচ্যুত হলেও কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদের ইমাম বরকতির গাড়ির মাথায় বহাল তবিয়তে রয়েছে লালবাতি ৷ সেই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে ইমামের স্পষ্ট বক্তব্য, ‘আমার কাছে লালবাতি লাগানোর বিশেষ অনুমতি আছে, যা আর কারোর কাছে নেই ৷’

পয়লা মে থেকে আর ভিআইপিদের গাড়িতে ব্যবহার করা যাবে না লাল বা নীলবাতি ৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ৷ নয়া নির্দেশিকা অনুযায়ী, শুধুমাত্র রাষ্ট্রপতি, উপ-রাষ্ট্রপতি, দেশের প্রধান বিচারপতি ও লোকসভার স্পিকারের মতো ব্যক্তিত্বদের গাড়ি ছাড়া আর কোনও নেতা-মন্ত্রীর গাড়িতে লাল বাতি লাগানো যাবে না ৷ কিন্তু এই সরকারি সিদ্ধান্তের কথা ইমাম বরকতিকে বলা হলে তিনি তা উড়িয়ে দিয়ে বলেন, ‘আমার কাছে ব্রিটিশ সরকারের অনুমতি আছে ৷ গাড়িতে লাল বাতি লাগানোর এই অনুমতি আর কারোর কাছে নেই ৷ কেন্দ্রীয় সরকারের লালবাতি বন্ধ করার কোনও ক্ষমতাই নেই ৷ ভারত সরকারের আগে নিজেদের আইন তৈরি করা উচিত ৷’

যদিও মন্ত্রীদের গাড়িতে লালবাতি লাগানো নিষিদ্ধ হওয়ার কথা জানতে পেরে বরকতির মন্তব্য, মন্ত্রীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে অনুনয়, বিনয় এবং ভিক্ষা করেন, তাই তাদের গাড়িতে লাল বাতি লাগানোর কোনও অধিকার নেই ৷ তবে শেষের দিন নিজের স্বর কিঞ্চিৎ নরম করে বরকতি জানান, সবাই খুলে ফেললে তিনিও লাল বাতি তখন খুলে ফেলবেন ৷

এর আগে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ও পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংহ তাঁদের সরকারি গাড়িতে লালবাতির ব্যবহার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

First published: 04:37:07 PM May 10, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर