corona virus btn
corona virus btn
Loading

আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি চরমে ! আগামী ২৪ ঘণ্টা আবহাওয়ার কী পূর্বাভাস দুই বঙ্গে ? দেখে নিন

আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি চরমে ! আগামী ২৪ ঘণ্টা আবহাওয়ার কী পূর্বাভাস দুই বঙ্গে ? দেখে নিন
Representatioanl Image

কলকাতা-সহ অন্যান্য কয়েকটি জেলাতেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ দু-এক পশলা হালকা বৃষ্টি হয়েছে সোমবার। তবে সকাল থেকেই দক্ষিণবঙ্গে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি ভোগাচ্ছে।

  • Share this:

#কলকাতা: মধ্যপ্রদেশে সরে গিয়েছে নিম্নচাপ। আজ, সোমবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে।উত্তরবঙ্গের উপরের দিকের পাঁচ জেলায় সোমবারও বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টি অব্যাহত। দক্ষিণবঙ্গে পশ্চিমের দিকে দু-এক জেলায় আজও বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টি। কলকাতা-সহ অন্যান্য কয়েকটি জেলাতেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ দু-এক পশলা হালকা বৃষ্টি হয়েছে সোমবার। তবে সকাল থেকেই দক্ষিণবঙ্গে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি ভোগাচ্ছে।

ওড়িশা ও অন্ধ্র উপকূলে নিম্নচাপ ছত্তিসগড়ের উপর দিয়ে মধ্যপ্রদেশে অবস্থান করছে। দ্রুত নিম্নচাপ মধ্যপ্রদেশে সরে যাওয়ায় বৃষ্টির পরিমাণ অনেকটাই কমবে। ভোগান্তি বাড়াবে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি।

দক্ষিণবঙ্গের পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়াতে দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাতেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা মাঝারি বৃষ্টির সর্তকতা রয়েছে। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই আর্দ্রতা ৯০ শতাংশের উপরে। এর ফলে সকাল থেকেই আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি এদিন চরমে উঠেছে।

উত্তরবঙ্গে সোমবার দার্জিলিং শহরের পাশাপাশি উপরের দিকের পাঁচ জেলায় বিক্ষিপ্ত দু-এক পশলা বৃষ্টির পূর্বাভাস। আগামিকাল মঙ্গলবারও  উত্তর বঙ্গের উপরের পাঁচ জেলার সঙ্গে উত্তর দিনাজপুরেও দু-এক পশলা বৃষ্টি হতে পারে। বুধবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ কমতে পারে। আপাতত অতি ভারী বর্ষণ বা প্রবল বর্ষণের কোনও সম্ভাবনা নেই উত্তরবঙ্গে।

কলকাতায় আজ, সোমবার আংশিক মেঘলা আকাশ। সকাল থেকেই বাতাসে জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি রয়েছে। বেলা যত বেড়েছে অস্বস্তিও বাড়ছে। দুপুর বা বিকেলে দু-এক পশলা বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা।কলকাতায় আজ, সোমবার সকালে তাপমাত্রা ছিল সর্বনিম্ন ২৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। গতকাল, রবিবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৬৯ থেকে ৯৪ শতাংশ।

আরব সাগরে এখনও নিম্নচাপ অবস্থান করছে উত্তর-পশ্চিম দিকে। এটি ক্রমশ পশ্চিমে সরে যাবে। রাজস্থান থেকে ছত্তিশগড় হয়ে মধ্যপ্রদেশের নিম্নচাপ পর্যন্ত নিম্নচাপ অক্ষরেখা তৈরি হয়েছে। ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে উত্তর প্রদেশ ও তামিলনাড়ু এলাকায় একই সঙ্গে একটি অফ অক্ষরেখা তৈরি হয়েছে কর্ণাটক, কেরালা উপকূলে। এই সিস্টেমের প্রভাবে আগামী ২৪ ঘণ্টায় কেরল, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক উপকূলে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা ৷ আগামিকাল মঙ্গলবার থেকে এই বৃষ্টি কমবে।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: August 10, 2020, 5:09 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर