চিকিৎসার নামে ব্যবসা, হাসপাতালের লাগামছাড়া বিলে নাভিশ্বাস সাধারণ মানুষের

চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে ব্যবসা বেসরকারি হাসপাতালের। লাগামছাড়া বিলের চাপে নাভিশ্বাস রোগী ও আত্মীয়দের।

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 16, 2017 07:09 PM IST
চিকিৎসার নামে ব্যবসা, হাসপাতালের লাগামছাড়া বিলে নাভিশ্বাস সাধারণ মানুষের
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 16, 2017 07:09 PM IST

#কলকাতা: চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে ব্যবসা বেসরকারি হাসপাতালের। লাগামছাড়া বিলের চাপে নাভিশ্বাস রোগী ও আত্মীয়দের। সরকারি হাসপাতালে প্রায় বিনামূল্যেই চিকিৎসা হয়। কিন্তু বেসকারি হাসপাতালে সেই খরচটাই কয়েক গুন। প্যাকেজের নামে রোগী ভরতি করে হেনস্থার শিকার হন আত্মীয় পরিজনেরা।

চিকিৎসার নামে ব্যবসা। বেসরকারি হাসপাতালের লাগামছাড়া বিল ও পরিষেবা নিয়ে বিস্তর অভিযোগ। সাধারণ অস্ত্রোপচার, ডায়ালিসিস থেকে শারীরিক পরীক্ষা। সবক্ষেত্রেই বেসরকারি হাসপাতালের খরচ সরকারি হাসপাতালের চেয়ে বহু গুণ বেশি।

নজরে বেসরকারি হাসপাতাল

--- চিকিৎসক না এলেও অনেক ক্ষেত্রে নেওয়া হয় ভিজিট

----রোগীর অবস্থা, চিকিৎসা পদ্ধতিও খরচ নিয়ে রোগী পরিবার অন্ধকারে

--- প্যাকেজে চিকিৎসা করালেও অতিরিক্ত টাকা দাবি করা হয়

----ডাক্তারের সঙ্গে দেখা করতে পারেন না রোগীর আত্মীয়রা

--মেডিক্লেম থাকলে খরচ আরও অনেকটা বাড়িয়ে দেখানো হয়

সরকারি হাসপাতালে সব পরিষেবাই ফ্রি। কিছু ক্ষেত্রে ওষুধ ও সরঞ্জামের জন্য সামান্য খরচ হয়। কিন্তু বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে গিয়ে আক্ষরিক অর্থেই ঘটি-বাটি বিক্রি করতে হচ্ছে অনেকেরই। সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসার খরচের ফারাক চোখ কপালে ওঠার মতো।

হাসপাতাল বিলে নাভিশ্বাস 

সরকারি হাসপাতাল                                                     বেসরকারি হাসপাতাল

গলব্লাডার( ল্যাপ্রোস্কপি) ২-৩ হাজার                               ৩০-৬০ হাজার

অ্যপেনডিক্স বিনামূল্যে                                                        ২৫-৪০ হাজার

হার্নিয়া- বিনামূল্যে                                                                     ৪০-৬০ হাজার

সিজারিয়ান অপারেশন- বিনামূল্যে                          ৫০ হাজার- দেড় লক্ষ

পলিসিস্টিক ওভারি অপারেশন বিনামূল্যে                   ৪০-৬০ হাজার

প্রস্টেট অপারেশন ২ হাজার                                               ৫০-৮০ হাজার

অ্যাঞ্জিওগ্রাম বিনামূল্যে                                                         ১০-২০ হাজার

অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি বিনামূল্যে

( শুধুমাত্র স্টেন্টের দাম ৫-১৫ হাজার)                         ৭০ হাজার -দেড় লক্ষ

হার্ট বাইপাস ২০-৩০ হাজার                                     ১ লক্ষ ২০ হাজার-২ লক্ষ ৫০ হাজার

হাঁটু রিপ্লেসমেন্ট ১০-২০ হাজার                               ৯০-১ লক্ষ ৭০ হাজার

ছানি ( মাইক্রো) বিনামূল্যে                                                  ৫-১০ হাজার

ছানি( ফেকো) ২-৫ হাজার                         ( লেন্সের খরচ) ২৫-৬০ হাজার

কিডনি স্টোন বিনামূল্যে                                                   ৭০-৯০ হাজার

ডায়ালিসিস ৫০০ টাকা                                  ( পি-পি মডেল) ১৪০০ টাকা

বেসরকারি হাসপাতালেই এই খরচ জেনারেল বেডের জন্য। এসি বা প্রাইভেট কেবিনে ভরতি হলে খরচ বাড়ে ১০ থেকে ২০ শতাংশ।

এছাড়াও ডিজিটাল এক্স রে , ইউএসজি, ইসিজি, সিটি স্ক্যান, এন্ডোস্কপির সহ বিভিন্ন শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার খরচও সরকারি হাসপাতালের চেয়ে পাঁচ থেকে দশ গুণ বেশি। বেসরকারি হাসপাতালের এই চড়া বিল নিয়ে প্রচুর অভিযোগ জমা পড়েছে ক্রেতা সুরক্ষা দফতরে।

First published: 07:09:26 PM Feb 16, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर