মেকওভার হতে চলেছে হাওড়া ব্রিজের, নতুন সাজে ব্রিজের উদ্বোধন করবেন মোদি

মেকওভার হতে চলেছে হাওড়া ব্রিজের, নতুন সাজে ব্রিজের উদ্বোধন করবেন মোদি

হাওড়া ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে মূলত পোর্ট ট্রাস্ট। প্রায় ১২ কোটি টাকায় সেতু সাজিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি এই সংস্থা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাতে নতুন সাজে ব্রিজের উদ্বোধন।

  • Share this:

#কলকাতা: ব্রিটিশরা আদর করে বলত গুডি ব্রিজ। তৈরি হওয়ার সময় এই ব্রিজ ছিল দুনিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম ক্যান্টিলিভার ব্রিজ। ১৯৯০ সালে আসে আন্তর্জাতিক সম্মান। গত ৭৭ বছর ধরে কলকাতা ও হাওড়াকে জুড়ে রেখেছে এই সেতু । পোর্ট ট্রাস্টের ১৫০ বছর উপলক্ষ্যে আলোর মালায় সাজছে হাওড়া ব্রিজ।

কমপ্লিট মেকওভার। আরও সুন্দরী, আরও অপরূপা হাওড়া ব্রিজ। কলকাতা বন্দরের ১৫০ বছর উপলক্ষ্যে আলোর মালায় সেজে উঠছে ব্রিজ। এলইডি আলোয় আরও মোহময়ী রবীন্দ্র সেতু ৷

বিশ্বের বিখ্যাত সেতুর গায়ে আলোর মালার টানে ছুটে যান যান পর্যটকরা। অস্ট্রেলিয়ার সিডনি হারবার ব্রিজ, আমেরিকার সান ফ্রান্সিনকো ব্রিজ, জর্জ ওয়াশিংটন ব্রিজ ও নিউ ইয়র্ক ব্রিজকে পাল্লা দিচ্ছে চিনে হুনানে তৈরি নতুন সেতু। হাওড়া ব্রিজকেও একইভাবে আলোয় মালায় সেজেছে ৷ এলইডি আলোয় ব্রিজ সেজে উঠেছে ব্রিজ ৷ লাল, গোলপি, হলুদ, নীল ও সবুজ রঙের আলো ব্যবহার করা হয়েছে ৷ সেতুর আলোর রঙ নির্দিষ্ট সময় অন্তর বদলে যাবে ৷ বিশেষ বিশেষ দিনে আলাদা রঙের আলো দেখা যাবে ৷

হাওড়া ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে মূলত পোর্ট ট্রাস্ট। প্রায় ১২ কোটি টাকায় সেতু সাজিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি এই সংস্থা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাতে নতুন সাজে ব্রিজের উদ্বোধন।

২০০৬ সালে প্রথমবার সোডিয়াম ভেপারের আলোয় হাওড়া ব্রিজ সাজিয়ে তোলা হয়। নতুন মেকওভারের পর ব্রিজের আকর্ষণ আরও বাড়বে। তবে হাওড়া ব্রিজের জন্য বোধহয় নামটাই কাফি ৷

ব্রিটিশ ভারতে প্রথমবার এই ব্রিজ তৈরিতেই হাওড়া ব্রিজ অ্যাক্ট তৈরি করা হয়

ব্রিজ নির্মাণে প্রযুক্তিগত বাধা কাটাতে পথ দেখায় স্যার আরএন মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে গঠিত কমিশন

ব্রিজ নির্মাণের ৭৫ শতাংশই উপাদানই যোগান দেয় দেশের ৪টি ভারতীয় সংস্থা

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ধাক্কা সামলে মাত্র ৭ বছরে তৈরি হয় হাওড়া ব্রিজ। দশগুণ বেশি ভার সহ্য করার ক্ষমতা রেখেই ব্রিজের পরিকল্পনা হয়েছিল। তাই ২০২০ সালেও হাওড়া ব্রিজের মাধ্যমেও দুই শহরের সেতুবন্ধন।

First published: 08:55:36 AM Jan 04, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर