• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Woman Commits Suicide in Salt Lake: মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলা নিয়ে বচসা, চরম পদক্ষেপ স্ত্রীর! গ্রেফতার স্বামী

Woman Commits Suicide in Salt Lake: মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলা নিয়ে বচসা, চরম পদক্ষেপ স্ত্রীর! গ্রেফতার স্বামী

প্রতীকী ছবি৷ Photo-PTI

প্রতীকী ছবি৷ Photo-PTI

বিয়ের পর থেকেই মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলা নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বচসা হত স্ত্রীর৷ গতকালও একই ঘটনা ঘটে (Housewife commits suicide in Salt Lake)৷

  • Share this:

    #বিধাননগর: মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলা নিয়ে স্বামীর স্বামীর সঙ্গে বচসা৷ যার জেরে আত্মহত্যা করলেন স্ত্রী (Woman Commits Suicide in Salt Lake)৷ সেই ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেফতার করল বিধাননগর দক্ষিণ থানার পুলিশ৷ ধৃতের নাম সঞ্জয় হালদার৷

    গত অগাস্ট মাসে ট্যাংরার বাসিন্দা পিউ হাজরা হালদার (১৮) নামে ওই যুবতীর সঙ্গে বিয়ে হয় সল্টলেকের (Salt Lake) দত্তাবাদের বাসিন্দা সঞ্জয় হালদারের৷ বিয়ের পর থেকেই মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলা নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বচসা হত স্ত্রীর৷ গতকালও একই ঘটনা ঘটে৷ স্বামী- স্ত্রীর মধ্যে তুমুল অশান্তি হয়৷ এর পর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সঞ্জয়৷

    আরও পড়ুন: বিয়ের প্রস্তাব নাকচ, কাটোয়ায় প্রেমিককে গুলি করে খুনের চেষ্টা প্রেমিকার!

    দুপুরে বাড়ি ফিরে সঞ্জয় স্ত্রীকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান৷ পিউকে উদ্ধার করে বিধাননগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা৷

    পিউয়ের পরিবারের তরফেই সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে বিধাননগর দক্ষিণ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়৷ তার ভিত্তিতেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ ধৃতকে এ দিন বিধাননগর আদালতে পেশ করা হবে৷

    আরও পড়ুন: উর্দি পরে এমন কাজ করতে পারলেন? বিধাননগর কাণ্ডে দুই পুলিশকর্মীকে প্রশ্ন বিচারকের

    সঞ্জয়ের পরিবার এবং প্রতিবেশীদের সূত্রে খবর, মোবাইলে গেম খেলার প্রতি স্ত্রীর অতিরিক্ত আসক্তি একেবারেই পছন্দ ছিল না সঞ্জয়ের৷ বিয়ের পর থেকেই তা নিয়ে অশান্তির সূত্রপাত৷ পিউয়ের পরিবারের পাল্টা অভিযোগ পিউকে মারধরও করতেন সঞ্জয়৷

    মঙ্গলবার দুপুরে অশান্তির পর পিউ পাশের ঘরে খেতেও যাননি৷ পরে ঘর থেকেই স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেন স্বামী৷ ময়নাতদন্তের জন্য গৃহবধূর দেহ আর জি কর হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ৷

    Anup Chakraborty

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: