ভর সন্ধেয়ে আস্ত দো'তলা বাড়ি ভেঙে দিলেন স্থানীয়দের একাংশ ! কিন্তু কেন ?

ভর সন্ধেয়ে আস্ত দো'তলা বাড়ি ভেঙে দিলেন স্থানীয়দের একাংশ ! কিন্তু কেন ?
Building Demolished

পরিত্যক্ত ভুতুরে বাড়ি। তাতেই নাকি চলত জুয়া মদের আড্ডা। এক কথায় সমাজ বিরোধীদের আখড়া।

  • Share this:

#কলকাতা: পরিত্যক্ত ভুতুরে বাড়ি। তাতেই নাকি চলত জুয়া মদের আড্ডা। এক কথায় সমাজ বিরোধীদের আখড়া। এই অভিযোগেই ভর সন্ধেয়ে আস্ত দো'তলা বাড়ি ভেঙে দিলেন স্থানীয়দের একাংশ। নেতৃত্ব দিলেন কাউন্সিলর। দাঁড়িয়ে দেখলেন থানার oc। অথচ, পুরসভার আগাম কোনও নোটিসই ছিল না। মারধর করে বের করে দেওয়া হয়েছে বাড়ির মালিকসহ ভাড়াটেদেরও। অভিযোগ বেলেঘাটার তেত্রিশ নম্বর ওয়ার্ডের বিশ্বাস পরিবারের।

বেলেঘাটা ৮২ A-এর তেত্রিশ নম্বর ওয়ার্ডের এই জায়গায় শুক্রবার বিকেল পর্যন্তও একটি দোতলা বাড়ি ছিল। ছেলে বউমা, স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন বাড়ির মালিক কল্যাণ বিশ্বাস। সেইসঙ্গে ছিল ১৬ টি ভাড়াটে পরিবারও। কিন্তু, সন্ধের পর পুরো বাড়িটাই মাটিতে মিশে গেল। দো'তলা বাড়ি ভেঙে গুড়িয়ে দিলেন স্থানীয়দের একাংশ।

বাড়ির মালিক কল্যাণ বিশ্বাসের অভিযোগ, মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। বাদ যায়নি বাড়ির মহিলারাও। দাঁড়িয়ে দেখেছেন থানার oc।

বিশ্বাস পরিবারের দাবি, পঁয়ষট্টি বছর ধরে এবাড়িতেই থাকতেন তাঁরা। রয়েছে ভাড়াটিয়ারাও। কিন্তু, স্থানীয় কাউন্সিলর পবিত্র বিশ্বাস তো অন্য কথা বলছেন।

কাঁকুরগাছিতে একটি নির্মীয়মাণ কোয়ার্টারে আপাতত ঠাঁই হয়েছে বাড়ির মালিকের। স্থানীয়দের একাংশের দাবি, প্রোমোটিংয়ের জন্যই রাতারাতি গুড়িয়ে দেওয়া হল এই বাড়ি। সবদিক দেখে আইনি লড়াইয়ের ভাবনায় বিশ্বাস পরিবার।

First published: 10:48:42 AM Sep 09, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर