এক ভয়ঙ্কর দেবী, কীভাবে হয়ে উঠল বাঙালির মা? রয়েছে দীর্ঘ ইতিহাস

এক ভয়ঙ্কর দেবী, কীভাবে হয়ে উঠল বাঙালির মা? রয়েছে দীর্ঘ ইতিহাস

সাধক কৃষ্ণানন্দ আগমবাগীশ কালীকে যে রূপ দিয়েছিলেন, তাকেই যেন আরও কাছের করে নেন রামপ্রসাদ সেন।

  • Share this:

#কলকাতা: কালী কলকাত্তাওয়ালি। এক ভয়ঙ্কর দেবী, কীভাবে হয়ে উঠল বাঙালির মা? এর পিছনে রয়েছে দীর্ঘ ইতিহাস। নানা কাহিনি। কালীকাহিনি।

দক্ষিণাকালী, মহাকালী, ভদ্রকালী, চামুণ্ডাকালী, শ্মশানকালী....কালীর নানা রূপ। নানা আকার।

অনেকে বলেন মহাভারতেও কালীর উল্লেখ রয়েছে। কালীর কথা শোনা যায় মার্কণ্ডেয় পুরানেও। সপ্তদশ শতকের নবদ্বীপের কৃষ্ণানন্দ আগমবাগীশ বাংলায় এখন যে কালীমূর্তি দেখা যায় তার প্রবর্তক ৷

সাধক কৃষ্ণানন্দ আগমবাগীশ কালীকে যে রূপ দিয়েছিলেন, তাকেই যেন আরও কাছের করে নেন রামপ্রসাদ সেন। তাঁর গানের ভক্তিরসের আবেদনে শ্মশানবাসী কালী ঢুকে পড়ে বাঙালির ঘরে ঘরে। বাঙালির মনে। কালী হয়ে ওঠে আদরের শ্যামা।

সে সময়ে চারপাশে নানা বিপর্যয়।

১৭৩৯ সালে মহাপ্লাবন

১৭৪২ এবং ১৭৫২ সালে বর্গী হানা

১৭৫৭ সালে পলাশির যুদ্ধ

১৭৬৯-এ মন্বন্তর।

এ সবের ভয়াবহ প্রভাব পড়েছিল বাংলার সাধারণ মানুষের উপর। সকলে তখন ঘুরে দাঁড়ানোর মতো শক্তি খুঁজছেন। ঠিক তখনই রামপ্রসাদের গান হয়ে উঠেছিল মানুষের আশ্রয়। মানুষ খুঁজে পেয়েছিল শক্তির দেবীকে। রামপ্রসাদের হাত ধরে বাঙালি নতুন রূপে পেয়েছিল কালীকে। পেয়েছিল মা কালীকে। রামপ্রসাদীয় সেই কালীকেই জনপ্রিয়তার অন্য মাত্রায় পৌঁছে দেন শ্রীরামকৃষ্ণ।

ভয়ঙ্কর এক দেবী থেকে কালী এ ভাবেই ধীরে ধীরে হয়ে উঠেছে ঘরোয়া। বাঙালির, মা কালী।

First published: 10:51:59 PM Oct 25, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर