• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • HIRAN CHATTERJEE SHARED SOME EXPERIENCE ON HOTEL SUITE CHANGED WITH MAMATA BANERJEE IN KHARAGPUR SB

Hiran Chatterjee on Mamata Banerjee: 'মুখ্যমন্ত্রী দেরিতে ঘুম থেকে ওঠেন', BJP-র হিরণের মুখে হঠা‍ৎ হোটেল-কাহিনি!

হিরণের হোটেল-কাহিনি

Hiran Chatterjee on Mamata Banerjee: ভোটের প্রচারপর্ব চলাকালীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর 'সম্পর্কের' রসায়ন নিয়ে মুখ খুললেন বিজেপি বিধায়ক হিরণ চট্টোপাধ্যায়।

  • Share this:

#খড়্গপুর: নিজের বিধানসভা এলাকায় দেখা পাওয়া যাচ্ছে বিধায়ক তথা অভিনেতা হিরণ চট্টোপাধ্যায়ের৷ আর এই অভিযোগেই খড়্গপুর শহরের তালবগিচা এলাকায় একাধিক পোস্টার পড়েছে বিজেপি বিধায়কের নামে৷ তৃণমূল কংগ্রেস তো বটেই, স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশেরও অভিযোগ, প্রায় একমাসেরও বেশি সময় খড়্গপুরে দেখা মেলেনি বিধায়ক হিরন্ময় চট্টোপাধ্যায়ের৷ যদিও এই অভিযোগকে তৃণমূলের অপপ্রচার বলেই দাবি করেছেন খড়্গপুর সদরের বিধায়ক। তাঁর দাবি, বিধানসভার অধিবেশনের কারণে নির্বাচনী এলাকায় যাওয়া হচ্ছে না তাঁর। এরই মাঝে ভোটের প্রচারপর্ব চলাকালীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর 'সম্পর্কের' রসায়ন নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। জানালেন, ভোটের প্রচারপর্ব চলার সময় খড়গপুরের হোটেলে তাঁর জন্য বরাদ্দ সুইট তিনি ছেড়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর জন্য।

হিরণ জানান, নির্বাচনের সময় খড়গপুরের গ্রিন ল্যান্ড হোটেলে নিজের সুইট মুখ্যমন্ত্রীকে ছেড়ে দিয়েছিলেন তিনি। টানা ১৫ দিন গ্রিন ল্যান্ডের ওই সুইটে থেকেই জঙ্গলমহল থেকে শুরু করে দুই মেদিনীপুর, বর্ধমানের নির্বাচনী প্রচার সেরেছিলেন মমতা। যদিও, হিরণের দাবি, হোটেল কর্তপক্ষ তাকে অনুরোধ করেছিলেন, সুইটটি চেঞ্জ করে নিতে।

তার কারণ ছিল, ওই সুইটের বাথরুমটা ঘরের সোজাসুজি হওয়ায় হুইল চেয়ারে যাতায়াত করা সহজ ছিল। আর মুখ্যমন্ত্রী তখন পায়ে চোট পেয়ে হুইল চেয়ারেই প্রচার সারছেন রাজ্যুজুড়ে। তাই মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ প্রতিবন্ধকতার কথা মাথায় রেখেই তিনি নিজের সুইট ছেড়ে দিতে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন।

তবে, এই দীর্ঘ হোটেল বাসে তার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর মুখোমুখি সাক্ষাৎ হয়নি বলে জানিয়েছেন হিরণ। তাঁর দাবি, খুব সকালে প্রাতঃভ্রমণ করতে তিনি হোটেল থেকে বেরিয়ে পড়তেন। আর সারাদিনের প্রচার সেরে ফিরতেন রাতে। অন্যদিকে, মুখ্যমন্ত্রী একটু লেট রাইজার। সেই কারণে একসময়ের তৃণমূল নেতা হিরণের সঙ্গে দেখা হয়নি তাঁরই একসময়ের দলনেত্রীর।

Published by:Suman Biswas
First published: