নারদকাণ্ডে রাজ্য সরকারের তদন্তের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন হাইকোর্টে

নারদকাণ্ডে রাজ্য সরকারের তদন্তের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন হাইকোর্টে

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে তৎপরতার সঙ্গে নারদকাণ্ডের তদন্ত শুরু হলেও সেই প্রক্রিয়াকে কোনও গুরুত্বই দিল না কলকাতা হাইকোর্ট ৷

  • Share this:

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে তৎপরতার সঙ্গে নারদকাণ্ডের তদন্ত শুরু হলেও সেই প্রক্রিয়াকে কোনও গুরুত্বই দিল না কলকাতা হাইকোর্ট ৷ নারদ নিয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ আনলেন আইনজীবী বিকাশ ভট্টাচার্য। একইসঙ্গে এর বিচার চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন আইনজীবী বিকাশ ভট্টাচার্য।

সোমবার হাইকোর্টে নারদ মামলার শুনানি চলাকালীন আইনজীবী বিকাশ ভট্টাচার্য প্রধান বিচারপতির কাছে আপীল করে বলেন, ‘আদালত অবমাননা করেছে রাজ্য’।

নারদ মামলায় বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরের কাছে আইনজীবী বিকাশ ভট্টাচার্য জানান, আদালত এই কাণ্ডের তদন্ত কার হাতে দিতে চায়, সেই নির্দেশ আসার আগেই রাজ্য সরকার স্বত:প্রণোদিত হয়ে তদন্তের ভার দিয়েছে কলকাতা পুলিশের হাতে ৷ তাঁর দাবী, এটি আদালতের অবমাননা ৷

আইনজীবীর আবেদন শুনে প্রধান বিচারপতি জানিয়ে দেন, ‘কে কী বলছে বা কে কী করছে সেটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়। আমরা যা নির্দেশ দেব, সেটাই শেষ কথা। কারও কোনও আপত্তি থাকলে, আদালতের পথ খোলা।’

একই সঙ্গে রাজ্যের আইনজীবীর কাছে এই ঘটনার ব্যাখ্যা চাইলেন প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুর । নারদ মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে আগামি শুক্রবার।

TMC_STING00000003-630x372

গত ১৭ জুন নবান্নে বিশেষ বৈঠকের পর কলকাতা পুলিশের হাতে নারদ স্টিং কাণ্ডের তদন্তভার তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পাওয়ার পর থেকেই তৎপরতার সঙ্গে তদন্তে নেমে পড়ে কলকাতা পুলিশ ৷ তদন্তের জন্য সিপি রাজীব কুমারের নেতৃত্বে SIT গঠন করে কলকাতা পুলিশ ৷ এছাড়া টিমে রয়েছেন জয়েন্ট সিপি (ক্রাইম) বিশাল গর্গ, কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইমের ওসি এবং ইকনমিক অফেন্স উইং শাখার ওসি-সহ কয়েকজন কর্তা ৷

মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশের ৪৮ ঘণ্টা পেরোতে না পেরোতেই নারদ ডট কমের কর্ণধার ম্যাথু স্যামুয়েলের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করে নিউমার্কেট থানার পুলিশ ৷ মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে নারদ নিউজের CEO ম্যাথু স্যামুয়েলের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে কলকাতা পুলিশ ৷

অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র থেকে জালিয়াতি, সম্মানহানির মতো একাধিক ধারায় নারদ ডট কমের কর্ণধারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷ ম্যাথু স্যামুয়েলের বিরুদ্ধে ৪৬৯ ধারায় সম্মানহানির উদ্দেশ্যে জালিয়াতি, ৫০০ ধারায় মানহানি, ৫০৫(১)(বি) ধারায় জনমানসে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ,১৭১(জি) ধারায় নির্বাচনের প্রার্থীর বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত কুৎসা ছড়ানো, ১২০(বি) ধারায় অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়েছে ৷

নারদকাণ্ডে মুখ্যমন্ত্রী তদন্তের নির্দেশকে স্বাগত জানিয়েছে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব ৷ প্রাক্তন মন্ত্রী ও সারদাকাণ্ডে ধৃত মদন মিত্র রবিবার বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী এতদিন তদন্তের নির্দেশ দেননি বলে সমালোচনা হচ্ছিল ৷ এখন তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ৷ তা নিয়েও কেন সমালোচনা হচ্ছে?’ কিন্তু রাজ্য সরকারের এই তদন্ত প্রক্রিয়ার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রধান বিচারপতির প্রতিক্রিয়ায় উজ্জীবিত হয়েছেন বিরোধীরা ৷ বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নানের বক্তব্য, ‘দোষীদের শাস্তি হোক, চায় না সরকার ৷ নজর ঘোরাতেই তদন্ত কমিটি গড়া হয়েছে ৷’

First published: 05:40:32 PM Jun 20, 2016
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर